আল কায়দার সঙ্গে সৌদি জোটের গোপন চুক্তি!

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে লড়াইরত সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ইয়েমেনে জঙ্গিগোষ্ঠী আল কায়দার সঙ্গে গোপন একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে। এই সামরিক জোটে আল কায়দার শত শত সদস্যকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। মার্কিন বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েট প্রেসের (এপি) অনুসন্ধানী এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

দুই বছরের বেশি সময় ধরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র ও অন্যান্য সমর্থন নিয়ে ইয়েমেনে হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে আসা এই জোটের দাবি ইয়েমেন থেকে আল কায়দার হামলা চালানোর সক্ষমতা গুঁড়িয়ে দিয়েছে তারা।

কিন্তু মার্কিন এই সংবাদমাধ্যমের অনুসন্ধান বলছে, আল কায়দার কিছু কমান্ডারকে অর্থের বিনিময়ে শহর ছেড়ে যাওয়ার সুযোগ দিয়েছে।

এপি বলছে, আল কায়দার অন্য নেতাদের কাছে থেকে অস্ত্র, যুদ্ধ সরঞ্জাম ও লুট করা অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে সামরিক জোট। এমনকি আল কায়দার শত শত সদস্যকে সামরিক জোটে সেনাসদস্য হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

চুক্তিতে জড়িত একটি সূত্র বলছে, চুক্তির ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র অবগত ছিল। ১৯৮৮ সালে ওসামা বিন লাদেনের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠিত সশস্ত্র এই জঙ্গিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ড্রোন হামলাও বন্ধ রেখেছিল ওয়াশিংটন।

তবে বার্তা সংস্থার এপির অনুসন্ধানে উঠে আসা তথ্যের সঙ্গে আরব উপদ্বীপের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের এই দেশটির স্বতঃস্ফূর্তভাবে সংঘটিত দুইটি যুদ্ধের স্বার্থ সাংঘর্ষিক।

একটি সংঘাতে ইয়েমেনে আরব উপদ্বীপ শাখার আল কায়দাকে (একিউএপি) হটাতে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত নেতৃত্বাধীন জোটের সঙ্গে কাজ করছে যুক্তরাষ্ট্র। বৃহৎ অন্য লড়াই চলছে দেশটিতে ইরান সমর্থিত ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে।

 

"