নিরাপত্তা পরিষদের নতুন ৫ অস্থায়ী সদস্য

প্রকাশ : ১০ জুন ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে নতুন পাঁচটি দেশকে নির্বাচিত করেছে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ। চলতি বছরের শেষে দুই বছর আগে অস্থায়ী সদস্য নির্বাচিত হওয়া পাঁচটি দেশের সদস্যপদের বিলোপ হবে। তখন থেকে পরবর্তী দুই বছরের জন্য সদস্য থাকবে নির্বাচিত নতুন পাঁচ দেশ জার্মানি, বেলজিয়াম, দক্ষিণ আফ্রিকা, ডমিনিকান রিপাবলিক আর ইন্দোনেশিয়া। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স নতুন পাঁচ রাষ্ট্রের অস্থায়ী সদস্য নির্বাচিত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে। জাতিসংঘের সব থেকে ক্ষমতাশালী প্রতিষ্ঠান হলো নিরাপত্তা পরিষদ। সংস্থাটির পক্ষে এ পরিষদই একমাত্র আইনি সিদ্ধান্ত নেওয়ার এখতিয়ার রাখে। এককভাবে এ পরিষদ কোনো রাষ্ট্রের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ, কিংবা সংস্থার পক্ষে কোনো দেশে সেনা পাঠানো কিংবা কোনো সিদ্ধান্তে ভেটো দেওয়ার এখতিয়ার সংরক্ষণ করে। রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, সাধারণ পরিষদে জাতিসংঘভুক্ত রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে ১৮৪টি দেশ নিরাপত্তা পরিষদের নতুন সদস্য হিসেবে জার্মানিকে ভোট দিয়েছে। বেলজিয়াম পেয়েছে ১৮১ দেশের অনুমোদন। আর মালদ্বীপের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ১৪৬ ভোট পেয়ে এশিয়া অঞ্চলের পক্ষে সদস্যপদ নিশ্চিত করেছে ইন্দোনেশিয়া।

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের মোট সদস্য রাষ্ট্রের সংখ্যা ১৫। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, রাশিয়া আর চীন স্থায়ী সদস্য। আর প্রতি বছরে পাঁচটি করে দেশকে পরবর্তী দুই বছর মেয়াদের জন্য অস্থায়ী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। ২০১৬ সালে সাধারণ পরিষদে দুই বছর মেয়াদের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয় নেদারল্যান্ডস, সুইডেন, ইথোপিয়া, বলিভিয়া আর কাজাখস্তান। ২০১৭ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন শেষে নিয়ম মেনে চলতি বছরের শেষে তাদের সদস্যপদ বিলুপ্ত হবে। এরপর ২০১৯-২০ সালের জন্য অস্থায়ী সদস্যের দায়িত্ব নেবে নতুন পাঁচ দেশ। ২০১৭ সালে দুই বছরের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয় কুয়েত পেরু পোল্যান্ড আইভরিকোস্ট ও গুনিয়া। ২০১৯ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালনের পর তাদের সদস্যপদ বিলুপ্ত হবে।

"