মঠের কাছে পারিশ্রমিক চেয়ে মামলা বৌদ্ধ ভিক্ষুর

প্রকাশ : ১৮ মে ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সেবাই সন্ন্যাসীদের ধর্ম। বৌদ্ধ মঠ এই নীতিতেই চলে। কিন্তু জাপানের এই বৌদ্ধ সন্ন্যাসীকে লোকসেবার নাম করে অমানুষিক পরিশ্রম করানো হয়েছে। এমনই অভিযোগ করে মন্দিরের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। জাপানের ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ মাউন্ট কোয়া বৌদ্ধ মঠের সন্ন্যাসী তিনি। এখানে প্রায় সবসময়ই পর্যটকদের ভিড় থাকে। ২০০৮ সাল থেকে এই মঠে রয়েছেন ওই সন্ন্যাসী। তার আইনজীবী নোরিটেক শ্রিকাকুরা জানিয়েছেন, এতটাই হাড়ভাঙা খাটুনি খাটানো হতো সন্ন্যাসীকে যে ২০১৫ সাল থেকে তিনি মানসিক অবসাদে আচ্ছন্ন হয়ে পড়েন। সন্ন্যাসীদের কাজ মানেই সেবা, সেটা সবাই জানে। সেই পরিশ্রমের মধ্যেও বিশ্রাম থাকে কিন্তু ওই সন্ন্যাসীকে টানা ৬৪ দিন ধরে দিনে ১৭ ঘণ্টা মঠে বিভিন্ন কাজ করানোর পর একদ- বিশ্রাম দেওয়া হতো না। সেখানে আগত পর্যটকদের তদারকির জন্য পাঠানো হতো। ক্রমে মানসিক অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন তিনি। তার পরেই মঠ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা করে ৫২,৬৪,১২০ টাকা পারিশ্রমিক চেয়েছেন ওই সন্ন্যাসী। ইতোমধ্যেই তিনি স্থানীয় শ্রমিক সংগঠনের সমর্থন পেয়েছেন।

"