ভারতে শিশু মৃত্যুর দায়ে অভিযুক্ত ‘খুনি কুকুর’

প্রকাশ : ১৪ মে ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের একটি আম বাগানের মধ্য দিয়ে এগিয়ে গেলে দেখা যায় গাছের গায়ে এখনো রক্তের দাগ। তিনজন লোককে সঙ্গে নিয়ে সেই পথে হেঁটে যাওয়ার সময় আত্মরক্ষার জন্য প্রত্যেকের সঙ্গে নিতে হয় বড় বড় বাঁশের লাঠি। এখানে গত ১ মে খালিদ আলি নামের একটি শিশু কুকুরের হামলার শিকার হয়ে মারা গেছে বলে।

১১ বছর বয়সী শিশুটি স্কুলে যাওয়ার পথে গাছ থেকে ফল পাড়ার সময় একদল কুকুর ঝাঁপিয়ে পড়ে তার ওপর। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আম বাগানের খামারি ৬৫ বছর বয়সী আমীন আহমেদ বলছিলেন, আমি ভোরবেলা প্রতিবেশীদের বাগান থেকে জোরে চিৎকার শুনতে পাই। তারপর আমি যা দেখলাম তা ভয়াবহ। ছোট শিশুটিকে কুকুর আক্রমণ করায় সে একটি গাছে ওঠার চেষ্টা করে কিন্তু জন্তুটি তাকে টেনে-হিঁচড়ে নিচে নামিয়ে আনে এবং তাকে কামড়ায়। আমি দৌড়ে গ্রামের লোকজনকে ডেকে আনি সাহায্যের আশায়।

কিন্তু গ্রামবাসীরা যতক্ষণে পৌঁছালেন ততক্ষণে খালিদ আলীর দেহ প্রাণহীন পড়ে আছে। হত্যাকারী কুকুরের দল বনের মধ্যে মিলিয়ে গেছে। নিহত শিশুটির শোকাহত পরিবারটি এখনো আকস্মিক এ দুর্ঘটনার ভয়াবহতা কাটিয়ে উঠতে পারছে না। ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়। এত মারাত্মকভাবে তাকে জখম করা হয়েছে যে হাসপাতালে নেওয়ার কোনো উপায় ছিল না- কাঁদতে কাঁদতে বলছিলেন খালিদ আলীর মা মেহজাবীন।

"