আগ্রাসন থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের মিসাইল হামলা : আসাদ

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সিরিয়ার পশ্চিমাঞ্চলে আগ্রাসন থেকেই যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্র শক্তি মিসাইল হামলা চালিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ। রোববার (১৫ এপ্রিল) তিনি রাশিয়ার আইনজীবীদের সঙ্গে বৈঠককালে এ মন্তব্য করেন বলে জানিয়েছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

যুক্তরাষ্ট্র তার দুই মিত্রদেশ ফ্রান্স ও ব্রিটেন সিরিয়ায় ব্যাপক মিসাইল হামলা চালায়। এই হামলার পর সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে প্রেসিডেন্ট আসাদ রাশিয়ার আইনজীবীদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

এদিকে আসাদ বাহিনীর সহায়ক শক্তি রাশিয়া এই হামলার নিন্দা জানিয়ে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে বৈঠকের আহ্বান জানিয়েছে। বৈঠকের পরে রাশিয়ার আইনজীবী সের্গেই জেলজনিক বলেন, সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন এই হামলা আগ্রাসন থেকেই করা হয়েছে।

তিনি জানান, প্রেসিডেন্ট আসাদ ফুরফুরে মেজাজে আছেন এবং তিনি কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

প্রেসিডেন্ট আসাদের উদ্ধৃতি দিয়ে রাশিয়ার কর্মকর্তারা বলেছেন, সিরিয়ার ওপর ত্রিপক্ষীয় হামলা চালানো হয়েছে। তবে মস্কো ও দামেস্ক তাদের বিরুদ্ধে শুধু সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করতেই যুদ্ধ চালাচ্ছে না দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতেও তাদের এই যুদ্ধ।

সিরিয়ার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শহর পূর্ব ঘৌতার দৌমা এলাকায় সরকারি বাহিনীর গ্যাস হামলায় কমপক্ষে ৭০ জনের প্রাণহানি ঘটে। তবে সিরিয়া এবং রাশিয়া উভয়ই রাসায়নিক হামলার কথা অস্বীকার করে।

 

এই রাসায়নিক হামলার জবাবে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আসাদ বাহিনীকে দায়ী করে বিভিন্ন সরকার নিয়ন্ত্রিত স্থাপনার ওপর মার্কিন মিত্রশক্তি একযোগে হামলা চালায়।

এ হামলায় যুদ্ধবিমান ও যুদ্ধজাহাজ থেকে মার্কিনবাহিনী ও তাদের মিত্ররা শতাধিক মিসাইল নিক্ষেপ করে। লোহিত সাগরে অবস্থানরত দুটি মার্কিন যুদ্ধজাহাজের মাধ্যমে হামলাটি পরিচালনা করা হয়। তাছাড়া সিরিয়ার হোমস প্রদেশে মার্কিন জোটের বিমানঘাঁটি থেকে ‘রকওয়েল বি-১’ বোমার যুদ্ধবিমান সিরীয় অবস্থানে বোমা হামলা চালায়।

 

"