‘এক মাসেই পাল্টে গেছে আমার জীবন’

প্রকাশ : ১৩ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

‘নার্ভ এজেন্টে প্রয়োগের মাধ্যমে হত্যা চেষ্টার শিকার সাবেক রুশ গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপালের মেয়ে ইউলিয়া স্ক্রিপাল এ মুহূর্তে রাশিয়ান দূতাবাসের সহায়তার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন।

৩৩ বছর বয়সী এ তরুণী সোমবারই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন, কিন্তু তিনি জানিয়েছেন যে তার বাবা ‘এখনো মারাত্মক অসুস্থ’।

পুলিশের মাধ্যমে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন গণমাধ্যমকে পূর্ণাঙ্গ সাক্ষাৎকার দেওয়ার মতো শক্তি এখনো তিনি ফিরে পাননি। ‘কিন্তু কেউ আমার বা আমার বাবার সঙ্গে কথা বলেনি’। সের্গেই স্ক্রিপালের ও তার মেয়ে ইউলিয়া স্ক্রিপালকে গত ৪ মার্চ একটি পার্কে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তাদের উদ্ধারে যাওয়া একজন পুলিশ কর্মকর্তাও পরে গুরুতরভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপরই ব্রিটেনের পুলিশ জানায়, যে স্ক্রিপাল এবং তার মেয়েকে হত্যার চেষ্টায় নার্ভ এজেন্ট বা স্নায়ুকে আঘাতকারী রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়েছে। ব্রিটেনসহ পশ্চিমা বিশ্ব এ ঘটনার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করলেও রাশিয়া এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। এ ঘটনার জের ধরে পরে মস্কো ও পশ্চিমা বিশ্বের মধ্যে তীব্র কূটনৈতিক সংকট তৈরি হয়। ৬৬ বছর বয়সী স্ক্রিপাল এখনো সলিসবুরি হাসপাতালে রয়েছেন। ইউলিয়া স্ক্রিপাল তার বিবৃতিতে আরো বলেছেন কিভাবে এক মাসেই পাল্টে গেছে তার জীবন। ‘আমার এক মাস আগের সাধারণ একটি জীবনের চেয়ে এটি সম্পূর্ণ ভিন্ন একটি জীবন’। স্ক্রিপালকে একটি নিরাপদ স্থানে নেওয়া হয়েছে। সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়েকে পাওয়া গিয়েছিল ব্রিটেনের নিরিবিলি স্যালিসবারি শহরের একটি পার্কের বেঞ্চে। ‘বিশেষভাবে প্রশিক্ষিত কর্মকর্তারা রয়েছেন যারা আমার দেখভাল করছেন এবং কিভাবে তদন্তটি হচ্ছে সেটি জানাচ্ছেন’। অবশ্য হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর তাকে টুইট বার্তায় অভিনন্দন জানিয়েছে যুক্তরাজ্যের রাশিয়া দূতাবাস।

একই সঙ্গে তারা বলেছে, ‘তাকে নিয়ে কি করা হচ্ছে বা তার ইচ্ছেয় সেটি হচ্ছে কি না তার প্রমাণ পাওয়া জরুরি’। স্ক্রিপাল তার বিবৃতিতে বলেছেন, ‘পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগে সুযোগ আমার আছে এবং রাশিয়ান দূতাবাসের যারা আমাকে সহযোগিতার প্রস্তাব দিয়েছেন সে বিষয়ে আমাকে জানানো হয়েছে। কিন্তু এ মুহূর্তে তাদের কোনো সহযোগিতা নিতে আমি ইচ্ছুক নই। পরে মত বদলালে আমি জানি কিভাবে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে’।

সের্গেই স্ক্রিপাল ও ইউলিয়া স্ক্রিপাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার সময় রাশিয়ায় তার চাচাতো বোন ভিক্টোরিয়া স্ক্রিপাল বিবিসিসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন। সোমবার ইউলিয়া হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাবার পর ভিক্টোরিয়া বলেছেন ইউলিয়া স্ক্রিপাল রাজনৈতিক আশ্রয় নেওয়ার পরিকল্পনা করছেন কিন্তু কোনো দেশের সেটি তিনি জানেন না। তবে ইউলিয়া তার বিবৃতিতে লেছেন ভিক্টোরিয়ার মতামত তার বা তার পিতার মতামত নয়।

নার্ভ এজেন্ট কী?

নার্ভ এজেন্ট হচ্ছে উচ্চ-ক্ষমতাসম্পন্ন বিষাক্ত রাসায়নিক যা স্নায়ুতন্ত্রকে বিকল বা অকার্যকর করে দিতে পারে এবং দৈহিক কর্মক্ষমতা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। সাধারণভাবে মুখ অথবা নাক দিয়ে এই রাসায়নিক দেহে প্রবেশ করানো হয় কিন্তু চোখ বা ত্বক তা শোষণ করতে পারে।

 

"