প্রাচীন মেগাশার্কের দাঁত চুরি

প্রকাশ : ১৪ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অস্ট্রেলিয়ার দুর্গম এলাকার একটি ন্যাশনাল পার্কে সংরক্ষিত প্রাচীন আমলের একটি দানবীয় হাঙ্গরের দাঁত চুরি হয়ে গেছে। বিবিসি জানায়, ৮ সেন্টিমিটার দীর্ঘ দাঁতটি নিনগালো কোস্ট পার্কের গোপন একটি স্থানে সংরক্ষিত ছিল; সেখান থেকেই এটি চুরি হয়েছে বলে ভাষ্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের। পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার এ পার্কটি ইউনেসকো ঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত। এখানে দানবীয় মেগালোডন প্রজাতির হাঙ্গরের দুটি দাঁত ছিল; এর মধ্যে একটি দর্শনার্থীদের দেখানো হয়। বাকিটি লুকিয়ে রাখা হয়েছিল, সেটিরই খোঁজ মিলছে না। লুকানো দাঁতটির দিকেই চোরদের নজর ছিল, ধারণা কর্তৃপক্ষের। ‘খারাপ ব্যাপার হচ্ছে,চোর সেই দাঁতটিই নিয়ে গেছে, যেটি অপেক্ষাকৃত ভালো অবস্থায় ছিল’-বলেন পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার পরিবেশ ও সংরক্ষণ বিভাগের মুখপাত্র আরভিড হোগস্টর্ম। পরিবেশ ও সংরক্ষণ বিভাগের কর্মীরা প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে ঢেকে মেগাশার্কের দাঁতটিকে পাথরের সঙ্গে বেঁধে ‘আধা গোপন’ একটি স্থানে লুকিয়ে রেখেছিল। হোগস্টর্ম জানান, অল্পসংখ্যক স্থানীয় ব্যক্তিসহ কয়েকজন স্থানটির অবস্থান জানতেন।

হাতুড়ি কিংবা বাটাল ব্যবহার করে দাঁতটি সরিয়ে ফেলা হয়েছে বলেও ধারণা তার; যা সংরক্ষণ আইনের লঙ্ঘন।

দাঁতটির বাজারমূল্য বেশি হবে না বলেও মন্তব্য হোগস্টর্মের। তিমিখেকো মেগালোডন প্রজাতির শিকারী হাঙ্গর ২৬ লাখ বছর আগেই পৃথিবী থেকে বিলুপ্ত হয়ে গেছে বলে অনুমান পরিবেশবিদদের। দানবীয় এ হাঙ্গর ১৮ মিটার পর্যন্ত দীর্ঘ হত; কোনো কোনোটির ওজন থাকত ১০০ টন। এ প্রজাতির হাঙ্গরগুলো বৃহৎ সাদা হাঙ্গরের চেয়েও ৩০ গুণ ভারী ছিল। মেগালোডনের ফসিল অস্ট্রেলিয়া ছাড়াও ইউরোপ, আফ্রিকা ও আমেরিকা মহাদেশের বিভিন্ন দেশে পাওয়া গেছে। চুরি যাওয়া দাঁতটি প্রাচীনকাল থেকেই ভালোভাবে সংরক্ষিত ছিল বলে জানান পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার পরিবেশ ও সংরক্ষণ বিভাগের মুখপাত্র। ‘সাধারণত, আপনি দাঁতের কিছু অংশ চুনাপাথরে খোদিত অবস্থায় পাবেন; তুলনায় এটি ছিল আস্ত দাঁত’-বলেন হোগস্টর্ম।

 

"