তালাকের পর সৌদি নারীদের অধিকার

প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বিচ্ছেদের শিকার সৌদি আরবের নারীদের আর সন্তানকে নিজের হেফাজতে নেওয়ার জন্য কোনো মামলা করতে হবে না। সংশ্লিষ্ট আদালতে কোনো ধরনের আইনী পদক্ষেপ ছাড়াই সন্তানকে নিজের কাছে নেওয়ার আবেদন জানাতে পারবেন বিচ্ছেদের শিকার মায়েরা। সৌদি আরবের আইনমন্ত্রী এবং বিচার বিভাগের হায়ার কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট শেখ ওয়ালিদ আল সামানির আদালতে দেওয়া এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে রূপরেখা তৈরি হয় নতুন এই পদ্ধতির। নতুন বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সরকারি দপ্তর, দূতাবাস, শিক্ষাক্ষেত্র, অফিস ও স্কুলে সন্তান সম্পর্কিত যেকোনো নিয়মকানুন মায়েরাই পূরণ করতে পারবেন। এমনকি সন্তানের পাসপোর্টের জন্য আবেদন ও সংগ্রহও করতে পারবেন তারা। তবে সন্তানকে সহযোগিতা ও লালন পালনের সকল সুবিধা সরকার ও সুশীল সমাজের কাছে থেকে পাবেন মায়েরা শুধু সৌদি আরবের বাইরে বিচারকের অনুমতি ছাড়া সন্তানের সঙ্গে ভ্রমণ করতে পারবেন না। জেদ্দার বিখ্যাত আইনজীবী মাজেদ গারোব আরব নিউজকে বলেন, এর আগে সন্তানকে নিজের জিম্মায় নিতে হলে মাকে একটি মামলা দায়ের করতে হতো। খুবই লম্বা সময় নিতো সেটি। ফলে সেটার একটা নেতিবাচক প্রভাব পড়ত মা, পরিবার ও সন্তানের ওপর।

দীর্ঘায়িত মামলা মায়ের জন্য খুবই কঠিন ছিল সঙ্গে সেই মামলার খরচের ব্যাপারগুলোও ছিলো। মাজেদ গারোব বলেন, পুরো বিষয়টি মায়ের জন্য বড় অত্যাচার ছিল। তাকে বাবার সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে হতো, তারপর কোর্টে আপিলের জন্য যেত মামলাটি। তারপর সবকিছু শুরু হতো। কিন্তু এখন ঘটনাটা পুরোই বদলে যাবে। সন্তানের ওপর প্রথমত অধিকার থাকবে মায়ের।

"