শুনানিতে দিল্লির আদালত

‘নারীকে তার অনুমতি ছাড়া কেউ স্পর্শ করতে পারে না’

প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

একজন নারীকে তার অনুমতি ছাড়া কেউ কোনোভাবেই স্পর্শ করতে পারে না বলে মত দিয়েছেন ভারতের রাজধানী দিল্লির একটি আদালত। গত শনিবার এক মামলার শুনানিতে আদালত বলেন, একজন নারীর শরীর সম্পূর্ণ তার নিজস্ব। তাই সেই শরীরের ওপর একচ্ছত্র অধিকার শুধু সেই নারীরই। উদ্দেশ্য যাই হোক না কেন, অনুমতি ছাড়া তার শরীরে হাত দেওয়ার অধিকার কারো নেই।

এর আগে নয় বছরের এক শিশুর ওপর যৌন নির্যাতনে অভিযুক্ত উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের বাসিন্দা ছবি রামকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় দেন আদালত। ২০১৪ সালে দিল্লির মুখার্জিনগরে ছবি রাম ৯ বছরের ওই শিশুর শ্লীলতাহানি করে। আদালত অভিযুক্তকে ১০ হাজার রুপি জরিমানা করেন, যার মধ্যে পাঁচ হাজার রুপি ওই শিশুকে দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়। সেইসঙ্গে দিল্লি স্টেট লিগাল সার্ভিস অথরিটিকে ৫০ হাজার রুপি দেওয়ার নির্দেশ দেন আদালত।

আদালতের অতিরিক্ত দায়রা বিচারক সীমা মইনি জানান, ক্ষেত্র বিশেষে মনে হচ্ছে পুরুষরা নারীদের গোপনীয়তার অধিকারকে স্বীকারই করে না। খারাপ উদ্দেশ্যে তাদের দিকে অগ্রসর হওয়ার আগে বা অসহায় নারীদের যৌন নিগ্রহের আগে একবার ভাবে না। এমন বিকৃত মানসিকতার লোকজন নাবালিকাসহ নারীদের গোপনীয়তার অধিকারের কথা ভুলে গিয়ে নিগ্রহ করে। ফলে যৌন ক্ষুধা বেড়ে যায়। বিকৃতমনস্ক মানুষ নারীদের অধিকার ভুলে তাদের সঙ্গে সহবাস করতেই ভালোবাসে। সে ক্ষেত্রে শিশুকন্যাদেরও রেহাই দেওয়া হয় না। বিচারক আরো বলেন, ভারতের মতো স্বাধীন, দ্রুত অগ্রগতির পথে যাওয়া এবং প্রযুক্তিগত দিক থেকে শক্তিশালী দেশে এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক যে, প্রাপ্তবয়স্ক কিংবা নাবালিকা সব নারীকেই যৌন বিকারগ্রস্ত, কামুক পুরুষের লাগাতার নিগ্রহের শিকার হতে হচ্ছে এবং সেটা বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ঘটছে বাজার ঘাট, সিনেমাহল, শপিং মলসহ জনবহুল বিভিন্ন এলাকায়।

"