বন্যায় ডায়রিয়ার প্রকোপ

প্রকাশ : ২১ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

সিরাজগঞ্জে দুর্গতদের মাঝে সরকারি উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ শুরু হয়েছে, কাজ করছে মেডিক্যাল টিম। বন্যায় ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধের সুরক্ষায় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। পর্যাপ্ত ত্রাণ রয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা। এছাড়া কুড়িগ্রামে বন্যার পানি নেমে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ছড়িয়ে পড়েছে পানিবাহিত রোগ।

সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রচুর রোগী ভর্তি হচ্ছে। অপরদিকে, নওগাঁর আত্রাইয়ে জুয়েলারি সমিতি দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছে। বন্যায় জেলার ধামইরহাটে একটি শিশু এবং পটুয়াখালীর গলাচিপায় দুইটি শিশু মারা গেছে। প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্টÑ

সিরাজগঞ্জ : যমুনার পানি ফের বৃদ্ধি পেয়ে সিরাজগঞ্জের ৫টি উপজেলার নি¤œাঞ্চলে পানি ঢুকেছে। গতকাল রোববার সকাল ৯টা পর্যন্ত পানি বিপদসীমার ৯৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। এদিকে, চৌহালী ও কাজীপুরের বাঁধে ফাটল দেখা দিয়েছে। জেলার ৭ হাজার ৮৩০ হেক্টর আবাদি জমির ফসল বিনষ্ট হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। অপরদিকে, জেলা প্রশাসন সূত্র জানিয়েছে, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ১৫৬টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। গতকাল রাত পর্যন্ত ১০৬টি আশ্রয়কেন্দ্রে দুর্গতরা আশ্রয় নিয়েছে। ইতোমধ্যে ৭১৬ টন চাল এবং ১৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে। ৫৬টি অস্থায়ী নলকূপ এবং ১৩৮টি অস্থায়ী ল্যাট্রিন স্থাপন করা হয়েছে। ১০৫টি পানির জেরিকেন এবং ১৫ হাজার লিটার বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আব্দুর রহিম। তিনি আরো জানান, এখনো পর্যাপ্ত পরিমাণ ত্রাণ সামগ্রী মজুদ রয়েছে। এছাড়া বাঁধ সুরক্ষার জন্য ৩টি স্থানে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। বন্যার্তদের মাঝে ছড়িয়ে পড়েছে পানিবাহিত রোগ। এজন্য ৯৬টি মেডিক্যাল টিমও কাজ করছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. শেখ মো. মঞ্জুর আলম। গতকাল বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত শাহজাদপুর উপজেলার পোরজোনা ইউনিয়নবাসীর ৬০০ জনের মাঝে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক কামরুন নাহার সিদ্দিকা। তাছাড়া আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থানকারীদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে গতকাল দুপুরে রান্না করা খাবার বিতরণ করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ হাসিবুর রহমান স্বপন।

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) : বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর বন্যাদুর্গত এলাকাগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে পানিবাহিত রোগ। গত ৭২ ঘণ্টায় নারী ও শিশুসহ ২০-২৫ জন ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছে। এছাড়া বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়ার ৬ জন চিকিৎসা নিচ্ছে। ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ডা. শাকিল আহমেদ জানান, হাসপাতালে পানিবাহিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। তাদের সঠিকভাবে চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হচ্ছে।

আত্রাই (নওগাঁ) : বন্যার্ত পরিবারগুলোর মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে আত্রাই উপজেলার জুয়েলারি সমিতি। গতকাল রোববার সকাল ৯টায় উপজেলার সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত পাঁচুপুর গ্রামে দুর্গতদের মাঝে চাল, ডাল, বিস্কুট এবং খাওয়ার স্যালাইন বিতরণ করা হয়েছে। ওই সময় উপস্থিত ছিলেন আত্রাই জুয়েলারি সমিতির সভাপতি একেএম কবির, সাধারণ সম্পাদক ও জনতা জুয়েলার্সের স্বত্বাধিকারী নজরুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি শামছুর রহমান, অশোক কুমার, শফিকুল ইসলাম প্রমুখ। এদিকে, নওগাঁর ধামইরহাটে বন্যার পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। জানা গেছে, গতকাল রোববার দুপুরে উপজেলার আড়ানগর ইউনিয়নের লক্ষ্মণপাড়া গ্রামের আঞ্জু আরা তার নাতি রোহিত বাবুকে (৮) সঙ্গে নিয়ে বন্যাকবলিত বলাবান রাস্তার ওপর দিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন। হঠাৎ পানির ¯্রােতে রোহিত বাবু পানিতে পড়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তার লাশ পানিতে ভেসে ওঠে। রোহিত বাবুর বাড়ি উপজেলার ধুরইল গ্রামে। তার বাবার নাম মিজানুর রহমান। সে তার নানী আঞ্জু আরা বেগমের সঙ্গে লক্ষ্মণপাড়া গ্রামে বসবাস করত। লক্ষ্মণপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর ছাত্র ছিল সে।

গলাচিপা (পটুয়াখালী) : বন্যার পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ঘটনা ঘটেছে উপজেলার বকুলবাড়িয়া ইউনিয়নের লামনা গ্রামে। সূত্র জানায়, গত শনিবার ঘরের সামনে খেলার সময় পুুকুরে আবু বকর সিদ্দীক (২) নামে একটি শিশু পড়ে যায়। বন্যার পানিতে পুকুরটি ছিল টইটম্বুর। এতে তার বোন মারিয়া বেগম (৫) পানি থেকে ছোট ভাইকে তুলতে গেলে তারও মৃত্যু হয় বলে অনেকে ধারণা করছে। তাদের মা খাদিজা বেগম খোঁজাখুঁজি করার পর হাত ধরা অবস্থায় ভাইবোনকে পুকুর থেকে তুলে গলাচিপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

"