চট্টগ্রামে লরি উল্টে নিহত ৩

প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রাম নগরের বন্দর থানাধীন নিমতলা এলাকায় কনটেইনারবাহী লরির চাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার তিন যাত্রী নিহত ও দুজন আহত হয়েছেন। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-মোশারফ হোসেন মুসা (৫০), ওয়াজেদ আলী বাবুল (৬০) ও অটোরিকশা-চালক মো. জসিম সিকদার (৩৮)। আহত দুজন হলেন-মো. সুজন ও মো. সাইদুল হক। চালক ছাড়া হতাহত পাঁচজনই পরিবহনের শ্রমিক।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বিশ্বরোডের নিমতলা এলাকায় একটি কনটেইনারবাহী লরি হঠাৎ রাস্তার গর্তে পড়ে উল্টে যায়। ওই কনটেইনারের নিচে চাপা পড়ে পাশে থাকা সিএনজিচালিত অটোরিকশা। এতে সিএনজির তিন যাত্রী ঘটনাস্থলে মারা যায়। আহতদের চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত সাইদুল হক বলেন, সকালে নিমতলা থেকে সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে পশ্চিম মাদারবাড়ি পোড়া মসজিদ এলাকায় যাচ্ছিলাম ভাড়া ধরার জন্য। পেছনের সিটে বসেছিলাম আমরা তিনজন। আমি সবার বাঁ-পাশে ছিলাম। চালকের বাঁ-পাশে বসেছিলেন সুজন। যখন গাড়ি নিমতলা মোড়ে এলো তখন একটি কনটেইনারবোঝাই লরি হর্ন দিল। আমাদের সিএনজি অটোচালক অপেক্ষা করলেন, লরিটি পার হওয়ার জন্য। চোখের পলকেই ঘটল দুর্ঘটনা। লরিটি চাপা দিল আমাদের সিএনজি অটোরিকশাকে।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে মো. সুজন বলেন, লরির প্রথম চাকাগুলো গর্তে পড়ল। তারপর উল্টে গেলে আমরা চাপা পড়ি। সিএনজি অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে গেল। লরিচালক কিংবা সিএনজি অটোরিকশাচালক কাউকে দোষ দিতে পারছি না। সব দোষ রাস্তার। রাস্তায় এমন গর্ত দেশের আর কোনো সড়কে দেখিনি।

বন্দর থানার ওসি ময়নুল ইসলাম বলেন, রাস্তা ভাঙা থাকায় লরিটি উল্টে যায়। পরে বড় ক্রেন এনে সেটি সরিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করা হয়। মোট তিনজন নিহত ও দুজন আহত হয়েছে। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ওই সড়ক যান চলাচল ফের শুরু হয়।

"