লাকসামে ব্যাপক উন্নয়ন

প্রকাশ : ১৯ জুন ২০১৭, ০০:০০

লাকসাম প্রতিবেদক

স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল অধিদফতরের নানামুখী উন্নয়নে বদলে যাচ্ছে কুমিল্লার লাকসামের সার্বিক যোগাযোগব্যবস্থা। ২০১৬-১৭ অর্থবছর যেন উপজেলার সবকটি ইউনিয়নের গ্রামীণ অবকাঠামোসহ যোগাযোগব্যবস্থায় নানা প্রকল্প বাস্তবায়নে ধারাবাহিক উন্নয়ন সাফল্যে মোড়ানো একটি বছর। সার্বিক যোগাযোগব্যবস্থার ক্ষেত্রে প্রধান প্রধান সড়কগুলোর উন্নয়ন উপজেলাবাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা। স্থানীয় সংসদ সদস্য মোঃ তাজুল ইসলামের আন্তরিকতায় প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে এলাকার যোগাযোগব্যবস্থায় যেন বিপ্লব ঘটেছে। স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল অধিদফতর কয়েক কোটি টাকা ব্যয়ে উপজেলার যোগাযোগব্যবস্থার ক্ষেত্রে চলছে আধুনিকতার ছোঁয়া।

বিশেষ করে পল্লী সড়ক ও কালভার্ট মেরামত কর্মসূচি প্রকল্পের আওতায় ২০১৬-১৭ অর্থবছরে মোট তিনটি প্যাকেজের মাধ্যমে লাকসাম-মনোহরগঞ্জ সড়ক মেরামত ৬ হাজার ৪০০ কিলোমিটার। ৪ কোটি ৪৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ১২ ফুট থেকে ১৬ ফুটে দুই পাশে প্রশ্বস্তকরণসহ রক্ষণাবেক্ষণ। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প-২ (আইআরআইডিপি-২) প্রকল্পের আওতায় ১ কোটি ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে নরপাটি-আজগরা সড়ক-০.৪৭৫ কিমি.। কান্দিরপাড় ইউপি অফিস-ছনগাঁও ঈদগাহ সড়ক ৮০০ মিটার ও চেঙ্গাহাটা আরঅ্যান্ডএইচ সড়ক-নূরপুর বাজার সড়কসহ মোট ১.৭৭৫ কিমি রাস্তা উন্নয়ন করা হয়। পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন (কুমিল্লা, বি-বাড়িয়া ও চাঁদপুর জেলা) প্রকল্পের আওতায় ৯৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা ব্যয়ে চরবাড়িয়া-পুলাইয়া সড়ক ১.১০০ কিমি ও তাঁতিপাড়া- আজগরা সড়ক ৬৬০ মি. মোট ১.৭৬০ কিমি রাস্তা এবং একাধিক প্রকল্প বাস্তবায়নের পথে। পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন (লাকসাম, মনোহরগঞ্জ ও বরুড়া) প্রকল্পের আওতায় ৭২ লাখ টাকা ব্যয়ে মোহাম্মদপুর-বেতিহাটি রাস্তায় একটি কালভার্ট নির্মাণ করা হয়। এ ছাড়া একাধিক প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে।

তৃতীয় প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি (পিইডিপি-৩) প্রকল্পের আওতায় ১ কোটি ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে উত্তরদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ, চিকোনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ, হারাখাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ করা হয়। এ ছাড়া দীঘিরপাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ, পশ্চিম জগৎপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ, আজগরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণকাজ চলমান আছে এবং বিদ্যালয়বিহীন এলাকায় ১৫০০ প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ৫৫ লাখ ৩৯ হাজার টাকা ব্যয়ে তপইয়া মৈয়ুরের নেছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ করা হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, স্থানীয় সংসদ সদস্য মোঃ তাজুল ইসলামের নির্দেশে আমরা বাস্তবায়নকৃত প্রকল্পগুলোর উন্নয়নে সার্বিকভাবে তদারকির মাধ্যমে শতভাগ কাজ ঠিকাদারদের কাছ থেকে আদায় করতে পেরেছি।

"