সেপটিক ট্যাংকে নেমে তিন শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশ : ১৭ জুন ২০১৭, ০০:০০

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জে একটি নির্মাণাধীন ভবনের সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করতে নেমে ‘বিষাক্ত গ্যাসে’ তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার শহরের থানাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে গোপালগঞ্জ সদর থানার এসআই তন্ময় সাহা জানান। নিহতরা হলেন- গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের হারেজের ছেলে নূর ইসলাম (৩০), আসাদ মুন্সির ছেলে জাহিদুর মুন্সি (১৮) ও সুমন।

গোপালগঞ্জ পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নূরুল আমিন শেখ বিপ্লব বলেন, সকাল ১০টার দিকে থানাপাড়ার ব্যবসায়ী হায়দার মুন্সির নির্মাণাধীন বাড়ির বহুতল ভবনের আন্ডার গ্রাউন্ডের নিচে সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করতে নামেন তিন শ্রমিক।

শ্রমিক গৌতম মজুমদার বলেন, ট্যাংকে নামার পর অনেকক্ষণ পেরিয়ে যাওয়ার পরও তারা উঠে না আসায় অন্য সহকর্মীরা তাদের খোঁজ করতে নিচে নামেন। সেখানে তাদের অসুস্থ অবস্থায় দেখলেও ট্যাংকের ভেতরে থাকায় তাদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানান তিনি।

গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ডিএডি জানে আলম বলেন, সেপটিক ট্যাংকে পানি জমে যে পরিমাণ কার্বন মনোক্সাইড তৈরি হয়েছিল সেই মাত্রাটি মানবদেহের জন্য অসহনীয়। যার ফলে অক্সিজেন ফেল করে তাদের মৃত্যু হয়েছে। তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই ওই তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয় বলে জানান তিনি।

এসআই তন্ময় বলেন, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি দল দুপুর ১২টা ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজ শুরু করে। পৌনে ২টার দিকে তারা তিনটি লাশ উদ্ধার করে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

"