হাঁপানি থাকলে বাড়তি সতর্কতা...

প্রকাশ : ৩০ মে ২০২০, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

করোনাভাইরাসের সঙ্গে এখন আর নতুন করে পরিচয় করানোর কিছু নেই। প্রতিদিন বিশ্বে যে কথাটি বর্তমানে সবচেয়ে বেশি বার উচ্চারিত হয় সেটি হয়ত এই ‘করোনাভাইরাস’। সবাইকেই সতর্ক থাকতে হচ্ছে এই মহামারি করোনা এড়াতে। হাঁপানি হলে বুকেব্যথা এবং শ্বাস নিতে সমস্যা হয়। আবার করোনার প্রাথমিক উপসর্গগুলোও এগুলো। কারো যদি আগে থেকে হাঁপানি থাকে তবে তার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যেতে পারে। এজন্য এই করোনাভাইরাস সংক্রমণের সময় হাঁপানির রোগীকে নিতে হবে বাড়তি সতর্কতা।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, হাঁপানি থাকলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমাতে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিতে হবে। যার মধ্যে রয়েছে :

১. নিজের শরীর সম্পর্কে সচেতন হন। ২. ধুলাবালি থেকে দূরে থাকুন। ৩. সব সময় পরিষ্কার থাকতে হবে। ৪. ঘর ও নিজের চারপাশ পরিষ্কার জীবাণুমুক্ত রাখুন। ৫. কোনো খাবার থেকেও হতে পারে শ্বাসকষ্ট। সেগুলো খাবেন না। ৬. গণপরিবহন এড়ানো ও বেশি মানুষের ভেতরে না যাওয়া। ৭. লকডাউন বা ছুটি না থাকলেও বাড়িতে থেকেই কাজ করতে হবে। ৮. হাত ধোয়ার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। ৯. বসবাসের জায়গার স্যানিটেশন করতে হবে। ১০. অন্য ব্যক্তির থেকে দুই মিটার দূরত্ব বজায় রাখতে পারলে ভালো হয়।

হাঁপানি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং করোনাভাইরাসে সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে মহামারি চলাকালীন নিয়মিত আপনার ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ ও ইনহেলার ব্যবহার করুন।

 

"