‘ইভেরা টুয়েলভ’ সেবন

পাঁচ দিনেই করোনামুক্ত ১২ পুলিশ সদস্য!

প্রকাশ : ২৯ মে ২০২০, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকার দোহার থানার ১২ পুলিশ সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এরপর পরীক্ষামূলকভাবে ‘ইভেরা টুয়েলভ’ নামের একটি ওষুধ দিয়ে তাদের চিকিৎসা করালে পাঁচ দিনের মধ্যেই সবার করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসে। আক্রান্ত পুলিশ সদস্যরা এবং সংশ্লিষ্ট থানার ওসি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তারা জানান, ‘ইভেরা টুয়েলভ’ ওষুধ সেবনে তাদের করোনা নেগেটিভ এসেছে। দোহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জসিম উদ্দিনের তত্ত্বাবধানে তাদের এ চিকিৎসা দেওয়া হয়।

করোনা থেকে মুক্তি পাওয়া পুলিশ সদস্য শফিকুল ইসলাম বলেন, করোনা পজেটিভ আসার পর পাঁচ দিন প্রতি রাতে একটি করে ইভেরা টুয়েলভ সেবন করি আমরা। দুই দিন পর থেকেই শারীরিকভাবে সুস্থতা অনুভব করি। আবার করোনা পরীক্ষা করা হলে ফল নেগেটিভ আসে। দোহার থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন বলেন, গত ১৭ মে রাতে দোহার থানার ১৬ জন পুলিশ সদস্য করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে ধারণা করি। পরদিন ১৮ মে আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন বিভাগে ভর্তি করা হয়। পরে ১৯ মে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজারবাগ পুলিশ লাইনস

হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এরপর গত ২০ মে করোনা আক্রান্ত ১৬ জনের মধ্যে ১২ জনকে বেক্সিমকোর উৎপাদিত ওষুধ ‘ইভেরা টুয়েলভ’ এর সঙ্গে ডক্সিসাইক্লিন সেবন করানো হয়। ‘ইভেরা টুয়েলভের’ জেনেরিক নাম আইভারমেকটিন। পাঁচ দিন ওই ওষুধ সেবনের গত ২৫ মে ১২ জনের নমুনা নেওয়া হয় করোনা পরীক্ষার জন্য। পরে ফলে ১২ জনেরই করোনা নেগেটিভ আসে।

অন্যদিকে রাজারবাগ পুলিশ লাইনসেও এ ওষুধ প্রয়োগ করে সাফল্যের কথা জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা। কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের চিকিৎসক পুলিশ সুপার মো. এমদাদুল হক বলেন, আইভারমেকটিন, ডক্সিসাইক্লিন ১০০ মিলিগ্রাম ওষুধ প্রয়োগে সুফল পাচ্ছি। এটা নিয়মিত প্রয়োগ করার কথা ভাবছি।

 

"