যুক্তরাষ্ট্রে আরো ১০ বাংলাদেশি মারা গেছেন

প্রকাশ : ২০ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আরো ১০ প্রবাসী বাংলাদেশি করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। সব মিলিয়ে দেশটিতে বাংলাদেশিদের প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়াল ১৬৬ জনে। এর মধ্যে নিউইর্য়কেই করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৫২ বাংলাদেশির।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া বাংলাদেশিরা হলেন রাইয়ান আহমেদ, শাহজালাল সরকার, ফিরোজ কবীর, আবদুল হামিদ, গোপাল দত্ত, সাগর নন্দী, গৌরাঙ্গ চন্দ্র, আবদুল গনি, নিরঞ্জন বণিক ও দেওয়ান সিদরাতুল মুনতাহানা। জানা গেছে, শনিবার মোহাম্মদ রায়হান নামে ২৬ বছরের এক তরুণ মারা যান। তিনি ১৯ দিন লাইফসাপোর্টে ছিলেন। রায়হানের বাবা মাহতাব উদ্দিনসহ পরিবারের অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে চিকিৎসা নিয়ে তারা সুস্থ হয়ে উঠছেন।

একই দিন মারা গেছেন নিউইয়র্ক বাংলাদেশ পূজা সমিতির সহসভাপতি গোপাল দত্ত। নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে পরলোকগমন করেন। তার দেশের বাড়ি সিলেটের গোলাপগঞ্জে। তার কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তার স্ত্রী বর্তমানে করোনার সঙ্গে লড়াই করছেন।

শনিবার সকাল ৭টার দিকে নিউইয়র্কের কুইন্সে বসবাসকারী ফিরোজ কবীর করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন অত্যন্ত পরিচিত মুখ ও ব্যবসায়ী সাগর নন্দী। শনিবার তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

নিউইয়র্ক প্রবাসী দিনাজপুর জেলা সমিতির অন্যতম সদস্য শাহ জালাল সরকার করোনায় আক্রান্ত শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় নিউইয়র্কের কুইন্স হাসপাতালে মারা যান। তিনি গত ২৯ মার্চ থেকে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। নিউইয়র্ক প্রবাসী আবদুল হামিদ করোনায় আক্রান্ত হয়ে নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

গত শুক্রবার নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন করোনায় আক্রান্ত দেওয়ান সিদরাতুল মুনতাহা।

গোরাঙ্গ চন্দ্র রোববার সকাল ৭টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে কুইন্সের একটি হাসপাতাপালে পরলোকগমন করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর।

নিরঞ্জন মল্লিক শনিবার সকালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। নিউইয়র্কে তিনি একা থাকতেন।

প্রসঙ্গত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এর মধ্যে শুধু যুক্তরাষ্ট্র আর যুক্তরাজ্যেই মারা গেছেন প্রায় ৩০০ বাংলাদেশি। এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে প্রাণঘাতী মহামারিতে মৃত্যুবরণ করা প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে দেড়শর বেশি ছিলেন নিউইয়র্কের বাসিন্দা। বাকিরা মিশিগান, নিউজার্সি, মেরিল্যান্ড ও ভার্জিনিয়ায় থাকতেন। দেশটির বিভিন্ন হাসপাতালে এখনো চিকিৎসাধীন অনেক বাংলাদেশি। এখন পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে করোনায় শতাধিক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। সৌদি আরবে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন অন্তত ১৭ জন বাংলাদেশি। কাতারে এ পর্যন্ত তিন বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। আক্রান্ত ৫০০। লেবাননে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ বাংলাদেশি। এ ছাড়া সিঙ্গাপুরে ১ হাজার ৬৫৩ বাংলাদেশি আক্রান্ত হয়েছেন।

 

"