সংক্রমণ বেশি নারায়ণগঞ্জ মিরপুর ও বাসাবো

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি বিস্তার লাভ করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা এবং ঢাকার মিরপুর ও বাসাবো এলাকায়। এছাড়া দেশের অন্যান্য জেলায়ও এ সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে। নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে অনেকেই দেশের অন্যান্য জেলায় গেছেন। সেখানে তাদের মাধ্যমে অনেকেই আক্রান্ত হয়েছেন। এমনটাই জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। গতকাল শনিবার মহাখালীর ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের মিলনায়তনে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে নিজ বাসভবন থেকে যুক্ত হয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এসব কথা বলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে বেশ কয়েকজন লোক দেশের অন্য জেলায় চলে গেছে। এ বিষয়কে আমাদের আরো কঠিনভাবে দেখতে হবে। এটা বন্ধ করতে হবে।

সরকারের ঘোষিত নির্দেশনা উপেক্ষা করছে অনেকেই। এতে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ছে এমনটাই মত স্বাস্থ্যমন্ত্রীর। তিনি বলেন, লোকজন এখনো ঘোরাফেরা করছে?। অলিগলিতে বেশি ঘোরাফেরা করছে। সকালে বাজারে লোকজনের উপস্থিতি আরো বাড়ছে। এতে সংক্রমণের হার আরো বাড়বে। আপনাদের বুঝতে হবে, এটা লকডাউন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন, সে নির্দেশনাগুলো মেনে চলতে হবে। আমরা মনে করি, লকডাউন যদি পুরোপুরি মানা হয়, তাহলে সংক্রমণ কমবে।

তিনি আরো বলেন, ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। কয়টা দিন আমরা একটু কষ্ট করতে পারলেই এর সমাধান হবে। এরই মধ্যে বেশকিছু ডাক্তার, নার্স, সেনাসদস্য, পুলিশ সদস্য, গণমাধ্যমকর্মীরা আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের সুস্থতা আমি কামনা করি। আরো বলি, ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন। ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকবেন, আক্রান্ত হবেন না। করোনা পরীক্ষা করুন, নিজে বাঁচুন, প্রিয়জনকে বাঁচান।

করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার্থে গৃহীত পদক্ষেপ নিয়ে বলেন, করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য নতুন করে তিনটি প্রতিষ্ঠানকে সুসজ্জিত করা হচ্ছে। বসুন্ধরা কনভেনশন সিটিতে ২ হাজার শয্যার আইসোলেশন সেন্টার, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের একটি মার্কেটে ১ হাজার ৩০০ শয্যায় আইসোলেশন, দিয়াবাড়ী একটি বহুতল ভবনে ১ হাজার ২০০ শয্যার আইসোলেশন করা হবে। এই তিনটি প্রতিষ্ঠানে সাড়ে ৪ হাজার শয্যা সংস্থাপন হবে। আরো বেশ কয়েকটি হাসপাতালকে করোনা চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত করা প্রয়োজন। আগামীতে আমরা মুগদা জেনারেল হাসপাতাল ও নিটোলের কথা চিন্তা করব।

 

"