বিসিক উৎপাদিত পিপিই আবার ব্যবহারযোগ্য

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

গাজী শাহনেওয়াজ

মানুষের এই দুর্যোগে ত্রাণকর্তা হয়ে সরকারের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে সরকারের একটি সংস্থা বিসিক শিল্পনগরী। দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবজনিত পরিস্থিতি মোকাবিলায় তারা উৎপাদন করছে পারসোনাল প্রটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই), হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক। স্বাস্থ্যবিধি মেনে তৈরি করা এসব সামগ্রী ধুয়ে পুনরায় পরিধানযোগ্য বলে দায়িত্বশীলরা নিশ্চিত করেছেন। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা ও রোগতত্ত্ব রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) পরামর্শে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এগুলোর উৎপাদন করা হচ্ছে। ফলে সুরখিত এসব সামগ্রী সশস্ত্রবাহিনীর পাশাপাশি দেশের নামিদামি হাসপাতালে সরবরাহ করা হচ্ছে। এগুলোর সঙ্গে বিসিক শিল্পনগরীতে প্রয়োজনীয় ওষুধ উৎপাদন অব্যাহত রেখেছে।

এক তথ্যে জানা গেছে, দেশের এই সংকটময় সময়ে বিসিক শিল্পনগরীগুলোতে উৎপাদিত পিপিই, স্যানিটাইজার ও মাস্ক বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) এবং ঢাকাসহ অন্যান্য জেলায় হাসপাতাল ও ক্লিনিকে পাঠানো হচ্ছে। সূত্রটি বলছে, নারায়ণগঞ্জ বিসিক হোসিয়ারি শিল্পনগরীর মেসার্স টি এ টেক্সল্ট অ্যাপারেলস দৈনিক গড়ে ৮০০ পিস ও মেসার্স মুন্সি ফ্যাশন দৈনিক গড়ে ৫০০ পিস পিপিই উৎপাদন করছে। উৎপাদিত পিপিইগুলো ধুয়ে পরে পুনরায় ব্যবহার করার উপযোগী বলে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়।

এদিকে ফকির অ্যাপারেলস লিমিটেড এবং মেসার্স জে এস কটন গত ৪ থেকে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত দৈনিক গড়ে ৯০০ পিস পিপিই উৎপাদন করে বিভিন্ন পর্যায়ে সরবরাহ করেছে বলে শিল্প মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

তাদের তথ্যে মতে, এখন পর্যন্ত গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে অবস্থিত বিসিক শিল্পনগরীর মেসার্স নাইটিংগেল ফ্যাশন লিমিটেড দৈনিক প্রায় ৭ হাজার পিস পিপিই তৈরি করে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে পিপিই সরবরাহ করছে।

বিসিক শিল্পনগরী বগুড়ায় স্থাপিত ওয়ান ফার্মা লিমিটেড দৈনিক ৩০ হাজার বোতল (তিন টন পরিমাণ) হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদন করছে যা ঢাকাসহ উত্তরাঞ্চলের ১৬টি জেলায় সরবরাহ করছে। নাটোরে গোল্ড কসমেটিকস ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড দৈনিক ২০০ বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদন করছে।

চট্টগ্রামের কালুরঘাটে অবস্থিত কুকার ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড দৈনিক ২০০ লিটার হ্যান্ডওয়াস ও ১০০ বোতল গ্লাস ক্লিনারসহ ফ্লোরক্লিনার উৎপাদন করছে। এছাড়া হাসপাতাল ও ক্লিনিকের যন্ত্রপাতি এবং ফ্লোর জীবাণুমুক্ত করার জীবাণুনাশকও উৎপাদন করছে কুকার ল্যাবরেটরিজ।

গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে অবস্থিত বিসিক শিল্পনগরীতে ওষুধ প্রস্তুতকারী শিল্প প্রতিষ্ঠান মেসার্স নেপচুন ল্যাবরেটরিজ, মেসার্স ডক্টর টিম ফার্মা লিমিটেড এবং মেসার্স কসমো ফার্মা ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে জীবন রক্ষাকারী ওষুধ উৎপাদন করছে।

আর টঙ্গীতে অবস্থিত বিসিক শিল্পনগরীর ওষুধ প্রস্তুতকারী শিল্পপ্রতিষ্ঠান মেসার্স রেডিয়েন্ট ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, মেসার্স রেডিয়েন্ট নিউট্রাসিউটিক্যালস লিমিটেড, মেসার্স ফার্মাসিল লিমিটেড, মেসার্স সডিক্যাল কেমিক্যালস লিমিটেড, মেসার্স গ্রিনল্যান্ড ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, মেসার্স বায়োফার্মা ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড ও মেসার্স বেঙ্গল রিমিডিস লিমিটেডের (পশুর ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান) উৎপাদন কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এছাড়া কোনাবাড়ীর বিসিক শিল্পনগরীর মেসার্স অ্যাসোসিয়েট ইন্ডাস্ট্র্রিজ (প্রা.) লিমিটেড ওষুধ শিল্পের জন্য অত্যাবশকীয় টিউব উৎপাদন করছে। প্রতিষ্ঠানটি প্লাস্টিক লেমিনেটেড টিউব ও কনটেইনার, অ্যালুমিনিয়াম কলাপসিবল টিউব তৈরি করে বিভিন্ন ওষুধ উৎপাদনকারী শিল্পপ্রতিষ্ঠানে সরবরাহ করছে। বিসিক চট্টগ্রাম (কালুরঘাট) শিল্পনগরীর তাজ সায়েন্টিফিক লিমিটেড দৈনিক ২ হাজার পিস মাস্ক উৎপাদন করে চট্টগ্রামের বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে সরবরাহ করছে। এছাড়া কারখানাটি বিভিন্ন মেডিকেল সরঞ্জামাদিও উৎপাদন করছে।

বিসিক শিল্পনগরী টঙ্গীতে মেসার্স টাম্পাকো ফয়েলস লিমিটেড ও মেসার্স শুকতারা প্রিন্টার্স লিমিটেড স্যালাইনের প্যাকেট, বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় উপকরণের প্যাকেট ও ওষুধের মোড়ক তৈরি করছে বলেও জানা গেছে।

 

"