চট্টগ্রামে মহিলা দলের নেত্রীর বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারে গুঞ্জন

প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

আসন্ন মেয়র নির্বাচনের আগে চট্টগ্রামে মেয়র পদে মনোনয়ন থেকে বাদ পড়া চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের কট্টর সমর্থক হিসেবে পরিচিত সিটি কাউন্সিলর ও চট্টগ্রাম বিএনপির নগর মহিলা দলের সভানেত্রী মনোয়ারা বেগম মনির বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ নিয়ে চট্টগ্রামের রাজনৈতিক অঙ্গনে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। গতকাল রোববার এ বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে তাকে স্বপদে বহাল করেছে বিএনপির কেন্দ্রীয় সংসদ। চট্টগ্রামে দলটির সহদফতর সম্পাদক ইদ্রিস আলী গতকাল প্রতিদিনের সংবাদের সঙ্গে আলাপকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চট্টগ্রামে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কয়েকজন সিনিয়র নেতা রোববারের এ বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহারের সময়টিকে আসন্ন মেয়র নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির একটি কূটকৌশল আখ্যা দিয়েছেন। তারা বলেন, যেহেতু শনিবার রাতে আওয়ামী লীগ কেন্দ্র থেকে আ জ ম নাছিরকে বাদ দিয়ে রেজাউল করিম চৌধুরীকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। এখন বিএনপি যাকেই প্রার্থী ঘোষণা দিক তার পক্ষেই মনোয়ারা বেগম কাজ করবেন এমনটিই বলা হচ্ছে বহিষ্কারাদেশের পত্রে।

চট্টগ্রামে বিএনপি নেতারা বলেন, নিঃসন্দেহে মনোয়ারা বেগম মনি বিএনপির পক্ষে মাঠের আন্দোলনে জোরালো ভূমিকা পালন করে আসছেন। পুলিশের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে জড়িয়ে আলোচনায় এসেছেন। পুলিশের মারে বহুবার আহত হয়ে পত্রপত্রিকায় শিরোনামে এসেছেন। এমনকি বিএনপির পক্ষে হরতাল চলাকালে আওয়ামী লীগের এক নেতা তার মুখে চড়ও বসিয়েছিলেন যা পত্রিকায় পরদিন প্রকাশিত হয়। তিনি বর্তমানে ১৪নং লালখান বাজার, বাগমনিরামসহ তিনটি ওয়ার্ডের সংরক্ষিত আসনের সিটি কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার এবং আ জ ম নাছিরকে আওয়ামী লীগ পুনঃমনোনয়ন না দেওয়ায় বিএনপির জন্য একটি টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে দেখছেন বিএনপির মহিলা দলের সমর্থকসহ দলের নেতাকর্মীরা। তাদের মতে, যেহেতু মনোয়ারা মনি বিএনপির একজন জাদরেল নেত্রী, তিনি মহিলা কাউন্সিলর হয়েও আওয়ামী লীগের মেয়র আ জ ম নাছিরের কট্টর সমর্থক। মেয়র নাছিরকে সমর্থন দেওয়ায় তাকে দল থেকে বহিষ্কারের মুখোমুখিও হতে হয়েছে। এ বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার এখন বিএনপির জন্য লাভ হয়েছে।

দলের সহদফতর সম্পাদক ইদ্রিস আলী জানান, গতকাল রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ স্বাক্ষরিত চিঠিতে বিষয়টি নিশ্চিত হয়। বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার প্রসঙ্গে সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ বলেন, মহাসচিব বরাবরে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মনোয়ারা বেগম মনির বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। এখন থেকে তিনি নগর মহিলা দলের সভানেত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন। দলকে শক্তিশালী করতে তিনি কাজ করবেন বলে আমরা আশা করছি।

 

 

"