লাকসামে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় ক্রীড়ায় সাফল্য এসেছে

প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০

মনোহরগঞ্জ (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন, পাকিস্তান আমলে ২৩ বছরে এদেশের একজন খেলোয়াড়কেও জাতীয় দলে স্থান দেওয়া হয়নি। স্বাধীনতার কারণে সে বাধা দূর হয়েছে। আর বর্তমানে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় আমাদের সন্তানরা আজ বিশ^জুড়ে ক্রীড়াসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে চলেছে।

গতকাল শনিবার লাকসামে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় মো. তাজুল ইসলাম বলেন, আমি এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত লাকসাম-মনোহরগঞ্জে রাস্তাঘাট, ব্রিজ, কালভার্ট, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা-মক্তব পাকাকরণ ও নতুন ভবন নির্মাণের পাশাপাশি শিক্ষা-সংস্কৃতি ও কৃষি খাতে যে উন্নয়ন সাধিত হয়েছে তা অতীতে কেউ দেখেনি। ইনশাআল্লাহ এখন মন্ত্রী হয়েছি, বাংলাদেশসহ আমার নির্বাচনী এলাকা লাকসাম-মনোহরগঞ্জেও ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করা হবে। পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব এসেছে ডাকাতিয়া নদী দেখতে। প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে অচিরেই ডাকাতিয়া নদী খনন করা হবে।

এর আগে গতকাল দুপুরে মনোহরগঞ্জে আয়োজিত সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

লাকসাম শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে আয়োজিত লাকসাম উপজেলা বনাম কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার উদ্বোধনী খেলায় সভাপতিত্ব করেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী মো. সাইফুর রহমান, কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন লাকসাম উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইউনুছ ভূঁইয়া, লাকসাম পৌরসভা মেয়র অধ্যাপক মো. আবুল খায়ের, লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম সাইফুল আলম, মনোহরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহেল রানা, লাকসাম উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মহব্বত আলী, কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট তানজিনা আক্তার, লাকসাম উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পড়শী সাহা, লাকসাম পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি তাবারক উল্যাহ কায়েস, লাকসাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা প্রমুখ।

 

"