সিরাজগঞ্জের প্রাইমারি স্কুল সাজছে লাল সবুজের রঙে

প্রকাশ : ১১ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

লাল সবুজের রঙে সাজানো হয়েছে সিরাজগঞ্জের ৯টি উপজেলার প্রায় ৬০ ভাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বরাদ্দকৃত উন্নয়ন ও মেরামতের অর্থে জাতীয় পতাকার আদলে চলছে লাল-সবুজের রঙ্গে সাজানোর কাজ।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায় যে জেলায় ১ হাজার ৬৭০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ইতিমধ্যেই প্রায় ৬০ ভাগ বিদ্যালয় ভবনকে জাতীয় পতাকার রঙে সাজানো হয়েছে। এসব বিদ্যালয়ের ভবনের রঙে ফুটে উঠেছে জাতীয় পতাকার আদল। সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার চররায়পুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রায়হানা আখতার জানান, লাল-সবুজ আমাদের পতাকার রঙ, আমাদের স্বাধীনতার প্রতীক। লাল-সবুজের ভবন দেখলে কোমলমতি শিশুদের মাঝেও স্বাধীনতার পাশাপাশি দেশাত্মবোধের চেতনা জাগ্রত হবে। এই রং করার ফলে শিক্ষার্থীরাও ক্লাসে উপস্থিত হচ্ছে আগ্রহ নিয়ে।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আপেল মাহমুদ জানান, জাতীয় চেতনার সঙ্গে সম্পৃক্ত লাল-সবুজ রঙের ভবন কোমলমতি শিশুদের ওপর ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। সরকারিভাবে যেসব বিদ্যালয়ে মেরামতের অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, সেসব বিদ্যালয়ের ভবন জাতীয় পতাকার আদলে সাজিয়ে তোলা হয়েছে। তিনি আরো জানান, সদর উপজেলার ২৪৬টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে এরই মধ্যে ১০০টি বিদ্যালয় রং করা হয়েছে। বাকিগুলো প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ পেলে দ্রুত রং করা হবে।

মো. আপেল মাহমুদ আরো জানান, সিরাজগঞ্জের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার তৈরির কাজ শুরু করা হয়েছে। এ বছর ৪০ বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার তৈরির কাজ সম্পন্ন হবে। বাকিগুলো পর্যায়ক্রমে হবে।

সিরাজগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সিদ্দিক মোহাম্মদ ইউসুফ রেজা বলেন, বাংলাদেশ ও মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাবোধ রেখে লাল-সবুজের রঙ্গে সাজানো হয়েছে জেলার প্রায় ১ হাজার বিদ্যালয়ের ভবন। এক বছরের মধ্যে পর্যায়ক্রমে সব বিদ্যালয়ই লাল-সবুজের রঙে রাঙিয়ে তোলা হবে বলেও জানান তিনি।

 

"