পাঁচ জেলায় ৮ লাশ উদ্ধার

প্রকাশ : ১০ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

রাজশাহীতে নিখোঁজের ১৫ দিনপর দিনমজুরের, নাটোরে পৃথক ঘটনায় তিনজনের ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে নিখোঁজের ১২ ঘণ্টা পর বাবা-ছেলের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া কুড়িগ্রাম ও রাঙ্গামাটিতে দুই জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ব্যুরো অফিস ও প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্ট :

রাজশাহী ব্যুরো অফিস জানায়, নিখোঁজের ১৫ দিন পর রাজশাহী মহানগরীর উপকণ্ঠ সুচরণ এলাকার একটি আখখেত থেকে দিনমজুর দুলাল হোসেনের (৪৫) গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত দুলাল পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর থানার উত্তর কাজিপাড়া গ্রামের সোবহান আলীর ছেলে। গতকাল বুধবার দুপুরে মহানগরীর কাটাখালি থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে কাটাখালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিল্লুর রহমান বলেন, ছাতা ও সেন্ডেল দেখে লাশ শনাক্ত করেন তার স্বজনরা। লাশের পাশে মাদকদ্রব্যও পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, মাদক সেবন করতে আখখেতে গিয়েই মৃত্যু হয়েছে।

নাটোর ও লালপুর প্রতিনিধি জানান, নাটোরের লালপুর ও বাগাতিপাড়া থেকে গতকাল বুধবার সাবিনা ইয়াসমিন নামে এক আনছার সদস্য এবং রেহেনা বেগম নামে এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত আনছার সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন লালপুর উপজেলার চংধুপইল বাজার এলাকার শাহিন হোসেনের স্ত্রী এবং রেহেনা বেগম বাগাতিপাড়া উপজেলার জয়ন্তিপুর গ্রামের সাফাতুল্লাহর স্ত্রী। এ ঘটনায় তার স্বামীকে আটক করা হয়েছে।

লালপুর থানার উপপরিদর্শক রফিকুল ইসলাম জানান, আনছার সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন পূজার ডিউটি শেষে রাতে বাসায় ফিরেন। সকালে ঘরে তার মরদেহ পাওয়া যায়। প্রাথমিকভাবে তার শরীরে বিষক্রিয়ার আলামত মিলেছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

অপরদিকে বাগাতিপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মতিন জানান, উপজেলার জয়ন্তিপুর গ্রাম থেকে রেহেনা বেগম নামে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে রেহেনা বেগমকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্ত করছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অপরদিকে, নাটোরের লালপুর উপজেলার গোপালপুরে কলেজছাত্র সৈকত হত্যা মামলার অন্যতম আসামি জাহিদুল ইসলাম (২৭) আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার বদ্যনাথপুর এলাকায় নিজ বাড়িতে ঘরের তীরের সঙ্গে রশি বেঁধে ফাঁস নিয়ে সে আত্মহত্যা করে। জাহিদুল বৈদ্যনাথপুর এলাকার জাকাত আলীর ছেলে। ২০১৫ সালে ২০ আগস্ট সৈকতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই মামলার অন্যতম আসামি ছিলেন জাহিদুল।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, জেলার শিবগঞ্জে পদ্মা নদীতে নৌকাডুবিতে নিখোঁজ হওয়ার ১২ ঘণ্টা পর গতকাল বুধবার সকাল ৮টার দিকে বাবা ও ছেলের মরদেহ উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা। নিহতের চাচাত ভাই জুয়েল জানান, তার ভাই শাহাবুদ্দিন (৪৭) ও ভাতিজা আব্দুল্লাহ (৬) মঙ্গলবার সকালে পদ্মা নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ হন। ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল রাত ৮টা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালিয়েও তাদের সন্ধান না পেয়ে ডুবুরি দলটি অভিযান পরিত্যক্ত ঘোষণা করে।

পরে বুধবার সকালে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়নের বান্নাপাড়া নামক স্থানে পদ্মা নদীর কিনারা থেকে ভাসমান অবস্থায় তার ভাইয়ের মরদেহ উদ্ধার করেন। এর কিছুক্ষণ পরে ৫০০ গজ দূরে ভাতিজা আব্দুল্লøাহরও মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

 

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি জানান, কুড়িগ্রাম শহরের শ্বশুরবাড়ি থেকে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ; যাকে তার স্বামী হত্যা করেছে বলে দাবি স্বজনদের। কুড়িগ্রাম পৌরসভার হাটিরপাড় হিঙ্গনরায় এলাকা থেকে শারমীন আক্তার (২৬) নামে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয় বলে সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাজু সরকার জানান।

নিহত শারমীন ওই এলাকার মাইদুল ইসলাম বাবুর স্ত্রী। একই এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে মাইদুল ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

রাঙামাটি প্রতিনিধি জানান, রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় এক ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। চন্দ্রঘোনা থানার ওসি মো. আশরাফ উদ্দিন জানান, বুধবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের কাকদাছড়ি এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করেন তারা। নিহত অংসুই অং মারমা (৫০) জেলার কাপ্তাই উপজেলার চন্দ্রঘোনা থানার পানছড়ি পাড়ার মংসুই মারমার ছেলে। ওসি আশরাফ এলাকাবাসীর বরাতে বলেন, ‘মঙ্গলবার রাতে কাকদাছড়ি এলাকার বাসিন্দারা গুলির শব্দ শুনতে পান। আর বুধবার সকালে তারা সেখানে লাশ দেখতে পান। স্থানীয়রা খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ করে। তবে কে বা কারা তাকে গুলি করেছে সে বিষয়ে তিনি কিছু বলতে পারেননি।

 

"