রংপুরে জি এম কাদের

আওয়ামী লীগ সরে যাওয়ায় নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়নি

প্রকাশ : ০৮ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

রংপুর ব্যুরো

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেন, উপনির্বাচন থেকে আওয়ামী লীগ সরে যাওয়ায় রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক হয়নি। যে কারণেই ভোটার উপস্থিতি কম ছিল। গতকাল সোমবার দুপুরে রংপুরের পল্লী নিবাসে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কবর জিয়ারত শেষে তিনি এ কথা বলেন। জি এম কাদের বলেন, আমি মনে করি না

সাংগঠনিকভাবে আমরা দুর্বল। আমাদের জনসমর্থন আছে এখানে প্রবল এবং সংগঠনও শক্তিশালী আছে। আমি বিশ্বাস করি, এসবের কারণেই আমরা বিজয়ী হয়েছি। ভবিষ্যতে এটা ধরে রাখতে আমাদের কোনো অসুবিধা হবে না। এই বিজয়কে আমরা ধারাবাহিকভাবে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাব। আরো উন্নয়নের মাধ্যমে বিজয়কে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাব।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, ক্যাসিনো ব্যবসায় সম্পৃক্তদের গ্রেফতারের বিষয়ে জাতীয় পার্টি আগেই সাধুবাদ জানিয়েছিল। এখনো এ বিষয়ে জাতীয় পার্টির অবস্থান অনড় রয়েছে।

ভোট কারচুপি হয়েছে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী রিটা রহমানের এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, উপযুক্ত প্রমাণ থাকলে তিনি নির্বাচন কমিশনের আদালতে জমা দিতে পারেন। আদালত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন। এ সময় জাতীয় পার্টি ও মহাজোটের নেতাকর্মী এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান রাহগির আলমাহি এরশাদ (সাদ)।

গত ৫ অক্টোবর রংপুর-৩ আসনে উপনির্বাচন হয়। এতে ৫৮ হাজার ৮৭৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী নির্বাচিত হন জাতীয় পার্টির প্রার্থী রাহগির আলমাহি এরশাদ (সাদ)। তার নিকটবর্তী প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত প্রার্থী রিটা রহমান ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পান ১৬ হাজার ৯৪৭ ভোট।

 

"