চুক্তিগুলো না পড়ে বিরোধিতা করা ঠিক না : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশ : ০৮ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপির দিকে ইঙ্গিত করে তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, চুক্তি না পড়ে, না বুঝেই যারা হতাশা প্রকাশ করেন, সেটা তাদের পুরোনো কুঅভ্যাসেরই ফল। সমঝোতা চুক্তিগুলো না পড়েই বিরোধিতা করা ঠিক না।

গতকাল সোমবার ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের প্রচার উপকমিটির সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সদ্যসমাপ্ত ভারত সফরে সম্পাদিত চুক্তি বিষয়ে বিএনপি, বাসদ ও তেল-গ্যাস-বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির মন্তব্য প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তারা বোঝেননি যে, এলপিজি মানে প্রাকৃতিক গ্যাস নয়, বরং ‘ক্রুড অয়েল’ বা অশোধিত পেট্রোলিয়াম পরিশোধন করার সময় প্রাপ্ত উপজাত, যা রফতানির সুযোগ দেশের জন্য অর্থনৈতিকভাবে অনেক লাভজনক। এর ব্যাখ্যায় তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, বিদেশ থেকে আমরা যে ‘ক্রুড অয়েল’ আমদানি করি তা ‘রিফাইন’ বা পরিশোধন করার সময় তেলের পাশাপশি প্রাপ্ত উপজাত হচ্ছে এই এলপিজি, যা রফতানির সুযোগ আমাদের অর্থনীতির জন্য সুসংবাদ।

ফেনী নদীর পানি ভারতের ব?্যবহারে আওয়ামী লীগের এ মুখপাত্র বলেন, ত্রিপুরা থেকে আগত ফেনী নদীর পানি ভারত আগে থেকেই ব্যবহার করে আসছিল, এবারের চুক্তিতে তাকে একটি কাঠামো-সীমার মধ্যে আনা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর এ সফর অত?্যন্ত ফলপ্রসূ উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব?্যবহারে ‘স্ট?্যান্ডার্ড অপরেটিং প্রসিডিউর-এসওপি’ বা কার্যপ্রণালি স্বাক্ষর একটি অসামান্য অগ্রগতি। ভারতের চট্টগ্রাম ও মোংলা, বিশেষ করে চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহারের ফলে আমাদের প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা ও বন্দর ব?্যবহারজনিত নানামুখী আয় বৃদ্ধি পাবে। ভারতের পূর্বাঞ্চলের সঙ্গে বাণিজ্যের জন্যই মূলত গড়ে তোলা চট্টগ্রাম বন্দর দেশের অর্থনীতিতে আরো ভালো ভূমিকা রাখতে পারবে।

বুয়েটে ছাত্র নিহত হওয়ার ঘটনা নিয়ে প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান বলেন, অত্যন্ত দুঃখজনক এ ঘটনাটি তদন্তাধীন। তদন্তে যে বা যারাই দোষী প্রমাণিত হবে, তাদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর কাউকে আটক করার অর্থ তাকে দোষী সাব্যস্ত করা নয়, তদন্তের পরই দোষী কে বা কারা বোঝা যাবে।

সভায় প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম চলমান দুর্নীতিবিরোধী অভিযান নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, দুর্নীতি বা দুর্র্বৃত্তায়নের হোতা যেই হোক, কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।

 

"