ঢাকা উত্তরের ফুটপাতে অভিযান শিগগিরই

প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর ফুটপাত থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে শিগগিরই বিশেষ অভিযানে নামছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। উত্তরা থেকে শুরু হয়ে ডিএনসিসির আওতাধীন প্রতিটি এলাকায় চলবে এই অভিযান। গতকাল সোমবার উত্তরায় ড্রেনেজ পাইপলাইন সম্প্রসারণ ও ফুটপাত প্রশস্তকরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম এ উচ্ছেদ অভিযানের ঘোষণা দেন।

আতিক বলেন, ফুটপাত থেকে অবৈধ দখলদার স্থাপনা উচ্ছেদে নামবো আমরা। ২০ সেপ্টেম্বর থেকে এই উচ্ছেদ অভিযান শুরু হবে। উত্তরা থেকে শুরু হবে। এভাবে প্রতিটি এলাকায় হবে।

পথচারীদের মূল সড়কের বদলে ফুটপাত দিয়ে হাঁটার আহ্বান জানিয়ে মেয়র আতিক বলেন, রাস্তা দিয়ে কিন্তু হাঁটা যাবে না। এখন আপনারা হাঁটছেন কারণ ফুটপাত দখলে তাই। ফুটপাত উচ্ছেদ করে দিলে তারপর আর রাস্তা দিয়ে হাঁটা যাবে না। তখন ফুটপাত দিয়েই হাঁটতে হবে। ড্রেনেজ পাইপলাইন সম্প্রসারণ ও ফুটপাত প্রশস্তকরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে বক্তৃতা করেন মেয়র আতিকুল ইসলাম। আগেও উচ্ছেদ অভিযান হওয়ার পরে নতুন করে ফুটপাত দখল হয়েছে। তাহলে এবার ব্যতিক্রম কী হবেÑ সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আতিক বলেন, ফুটপাত উচ্ছেদ অবশ্যই চ্যালেঞ্জের কাজ। আজ দখলমুক্ত করলাম কাল আবার বসবে। এমনটা আমরা দেখেছি। এজন্য একটি এলাকায় অভিযান শুরু করে সেটি শেষ করে অন্য এলাকায় যাব। এভাবে সবাইকে নিয়ে ফুটপাত দখলমুক্ত করব। আমি এ বিষয়ে জনগণের সাহায্য চাই। তাদের পাশে থাকতে হবে।

অনুষ্ঠানে মেয়রের উদ্বোধনের পর আইডিআরসি প্রকল্পের আওতায় উত্তরার ৪নং সেক্টরের শায়েস্তা খাঁ অ্যাভিনিউ থেকে ৬নং সেক্টরের ঈশা খাঁ অ্যাভিনিউ পর্যন্ত প্রশস্ত ড্রেনেজ পাইপলাইন এবং ফুটপাত প্রশস্তকরণের কাজ শুরু হয়। উত্তরার ৪নং সেক্টরের বিভিন্ন রাস্তা এবং ঢাকা-ময়মনসিংহ রোডের পূর্ব পাশের জলাবদ্ধতা দূর হবে এমনটাই এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য। ৩৫ কোটি ৪৭ লাখ ৪১ হাজার ৭৭ টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়িত হবে এই কাজ।

 

"