অনলাইন রিভিউ থেকে সাবধান!

প্রকাশ : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

কোথাও ঘুরতে গিয়ে হোটেল পছন্দ করার সময় অনেকেই রিভিউ দেখে সিদ্ধান্ত নেন। তবে এখন থেকে তা করতে গিয়ে একটু সতর্ক থাকলে আপনারই ভালো হবে। কারণ ব্রিটেনের কনজিউমার সংস্থা ‘হুইচ!’ সম্প্রতি মার্কিন কোম্পানি ট্রিপ অ্যাডভাইজার নিয়ে একটি জরিপ প্রকাশ করেছে। এতে দেখা গেছে, বিশ্বের শীর্ষ ১০০টি হোটেলের মধ্যে ১৫টির রিভিউ ভুয়া। আর বাকিগুলোর রিভিউয়ের ক্ষেত্রেও গভীর সন্দেহ দেখা গেছে। রয়েছে তথ্য-উপাত্তের ঘাটতি।

১০টি জনপ্রিয় পর্যটন স্থানের প্রতিটির শীর্ষ ১০ হোটেলের প্রায় আড়াই লাখ রিভিউ বিশ্লেষণ করেছে হুইচ! কায়রোর এক হোটেলের পাঁচতারকা-বিশিষ্ট রিভিউয়ের প্রায় ৮০ শতাংশ এসেছে প্রথমবার রিভিউ করা অতিথিদের কাছ থেকে। ইতালির রাজধানীর অন্যান্য অনেক আকর্ষণের একটি স্প্যানিশ স্টেপস। কিন্তু সেই সিঁড়িতে বসে সেলফি তোলায় এতটাই সময় পার করেন পর্যটকরা, যে ভিড়ের কারণে হাঁটাচলাই অসম্ভব হয়ে পড়ে। ফলে এবার শহর কর্তৃপক্ষ এ বিখ্যাত সিঁড়িতে বসাই নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। নিষেধ অমান্য করলে পুলিশ ৪০০ ইউরো পর্যন্ত জরিমানা করতে পারে।

হুইচ! এর কাছ থেকে এই তথ্য পাওয়ার পর ট্রিপ অ্যাডভাইজার তাদের ‘কায়রোর সেরা’ তালিকা থেকে ওই হোটেলের নাম বাদ দিয়েছে। এ ছাড়া লাস ভেগাসের দুটি হোটেলের পাঁচতারকা রিভিউয়ের প্রায় অর্ধেক রিভিউ এসেছে প্রথমবার রিভিউকারীদের কাছ থেকে। হুইচ! এর নাওমি লেচ বলছেন, ভুয়া রিভিউ ঠেকাতে ট্রিপ অ্যাডভাইজারের ব্যর্থতা এবং এসব হোটেলের বিরুদ্ধে শক্ত পদক্ষেপ নিতে না পারার কারণে পর্যটকদের ছুটি মাটি হওয়ার আশঙ্কায় পড়েছে। ট্রিপ অ্যাডভাইজারের মুখপাত্র জেমস কে বিবিসিকে বলেছেন, তারা খুব সক্রিয়ভাবে ভুয়া রিভিউ মোছার উদ্যোগ নিয়েছেন। ‘অন্যান্য প্ল্যাটফরমের চেয়ে আমরা এমন কাজ বেশি করছি,’ বলে জানান তিনি। হুইচ!-এর জরিপ এমন একসময় প্রকাশিত হলো; যখন ব্রিটেনের কম্পিটিশন অ্যান্ড মার্কেটস কর্তৃপক্ষ ভুয়া ও প্রতারণামূলক অনলাইন রিভিউ বিক্রি ঠেকানোর উদ্যোগ নিচ্ছে। ইতোমধ্যে তারা ফেসবুক ও ইবে-কে তাদের সাইটে ভুয়া রিভিউ বিক্রি বন্ধ করতে বলেছে।

 

"