ভারতের কাশ্মীরে বিস্ময় শিশু!

প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার যখন ঘোষণা হয়, শিশু তালহা আরশাদ রেশির কাশ্মীরে তখন ১৪৪ ধারা বলবৎ। কাশ্মীরের বিস্ময় শিশু তালহা এবার ৬৬তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে উর্দু ভাষার ছবিতে সেরা শিশু অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছে। ‘হামিদ’ সিনেমার জন্য সে এ পুরস্কার পায়। কিন্তু সিনেমার পরিচালক আইজাজ খান গতকাল শনিবার সকাল পর্যন্ত এই বিস্ময় শিশুর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি। কারণ জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে ওই অঞ্চলকে ভারতের সঙ্গে একীভূত করার ঘোষণার পরপরই কাশ্মীরের সঙ্গে বাইরের সব যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

যদিও টানা পাঁচ দিন পর গতকাল শনিবার জম্মু ও কাশ্মীরে অচলাবস্থার আংশিক অবসান হয়েছে। গত শুক্রবার সকালে ফোন পরিষেবা ও ইন্টারনেট আংশিকভাবে চালু করা হয়। জুমার নামাজ আদায়ের সুবিধার্থে রাস্তাঘাটে চলাচল-সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞাও শিথিল করা হয়। পুরস্কারপ্রাপ্তির পর বার্তা সংস্থা পিটিআইকে পরিচালক আইজাজ বলেছেন, ‘এ আনন্দ প্রকাশের ভাষা আমার জানা নেই। আমি শিহরিত। আমি এতটা আশাও করিনি। মহান স্রষ্টাকে ধন্যবাদ জানাই। তালহার পরিবার পুরস্কারপ্রাপ্তি সম্পর্কে আগে কিছুই জানত না। জেনেছে গতকাল শনিবার দুপুর ফোন ও ইন্টারনেট চালু হওয়ার পর।

উর্দু ভাষার ছবি ‘হামিদ’ আট বছরের এক শিশুর গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে। ছবির গল্পে রয়েছে, কাশ্মীরি সেই শিশু তার হারানো বাবাকে ফিরে পেতে আল্লাহর সঙ্গে ফোনে কথা বলতে চায়। সে ৭৮৬ নাম্বারে ডায়াল করে এবং সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের একজন জওয়ানের সঙ্গে কথা হয়। বালকটি সেই জওয়ানকেই স্রষ্টা হিসেবে বিশ্বাস করতে থাকে। সূত্র : ইন্ডিয়া টিভি

 

"