প্রেমের টানে লক্ষ্মীপুরে মার্কিন নারী

প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

প্রেমের কোনো দেশ-কাল-পাত্র নেই। ভালোবাসার টানে নজির আছে সিংহাসন ছাড়ার। এই প্রেমের টানেই সমাজ-সংসারের সব প্রতিবন্ধকতাকে অতিক্রম করে নিজ দেশ ছাড়লেন মার্কিন নারী সারলেট। ঘর বাঁধলেন লক্ষ্মীপুর সদরের দত্তপাড়া ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের সফিক উল্যাহর ছেলে সোহেল হোসেনের সঙ্গে। ২০১৩ সালের ৪ নভেম্বর ফেসবুকের মাধ্যমে তাদের পরিচয়। এরপর বন্ধুত্ব প্রেম। দুই দেশের সংস্কৃতি আলাদা থাকলেও শেষ পর্যন্ত ভালোবাসারই জয় হয়েছে। উভয়ের পরিবার মেনে নেয়ার পর গত ১২ জুলাই বাংলাদেশে আসেন সারলেট। গত মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে গৃহবধূ হিসেবে বরণ করে নেয় হয় মার্কিন এই নারীকে।

এ ঘটনায় এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে, এলাকায় মানুষের মুখে মুখে এই নতুন বর কনের নাম। ফুলসজ্জা থেকে শুরু করে নববধূকে নিয়ে আপ্যায়ন অতিথিপরায়নতা সবই হয় সোহেল হোসেনের নিজ গ্রামের শ্রীরামপুর দাইয়ুম উল্যাহ পাটওয়ারী বাড়িতে। মার্কিন এই নারীকে দেখতে আসেন ওই এলাকার শতাধিক মানুষ। মার্কিন নারী সারলেটের বাড়ি আমেরিকার নিউ জার্সিতে। এর আগে ২০১৬ সালে ১৭ জুলাই বাংলাদেশে এসে তাদের বিয়ে হয়। ভিনদেশি হলেও পুত্রবধূকে দেখে বেশ খুশি সোহেল মা-বাবা। স্বামী সোহেল জানান, দীর্ঘ ৭ বছর আগে ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয়ে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠে সারলেটের সঙ্গে। পরস্পর পরস্পরের সঙ্গে গভীর সম্পর্কের (প্রেম) এক পর্যায়ে সারলেট বাংলাদেশে আসে। ২০১৬ সালের ১৭ জুলাই বিয়ের কাবিন হয়। এরপর সে আমেরিকায় চলে যায়। ১২ জুলাই পুনরায় বাংলাদেশে আসে এবং গ্রামের বাড়িতে ধুমধাম করে বিয়ে হয় তাদের।

"