বরিশালের সৌন্দর্যে মুগ্ধ মার্কিন রাষ্ট্রদূত

প্রকাশ : ১২ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

বরিশাল ও ঝালকাঠি প্রতিনিধি

বাংলাদেশে আসার পর দেশের আটটি বিভাগ ঘুরে দেখেছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার। তার কাছে মনে হয়েছে, এ দেশের রাজনৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক অবস্থা খুবই শান্তিপূর্ণ। সারা দেশেই সৌহার্দ্যপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করছে। বিশেষ করে, বরিশালের সৌন্দর্য মুগ্ধ করেছে তাকে। গতকাল বৃহস্পতিবার বরিশাল সফরের তৃতীয় দিনে বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের কাছে এ কথা বলেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। এ দিন তিনি দেশের প্রথম কৃষি পর্যটন কেন্দ্র নামে খ্যাত ঝালকাঠি সদর উপজেলার ভীমরুলীতে জলেভাসা পেয়ারার হাট পরিদর্শন করেন। সকাল ৯টায় তিনি ভাসমান পেয়ারার হাট পরিদর্শন করেন। তিনি নৌকায় চড়ে ভীমরুলী গ্রামের ভীমরুলী খালে সংক্ষিপ্ত নৌ-ভ্রমণ করেন। পরে তিনি পেয়ারার ডিঙি নৌকায় চড়ে স্থানীয় সাধারণ পেয়ারা ও সবজি চাষিদের সঙ্গে মিশে যান এবং তাদের সঙ্গে কথা বলেন।

দুপুর ২টার দিকে বরিশাল নগরের অক্সফোর্ড মিশন চার্চ পরিদর্শনে যান রবার্ট মিলার। কথিত আছে, কবি জীবনানন্দ দাশের সঙ্গে তার প্রথম প্রেমিকা মুনিয়ার দেখা মেলে এই অক্সফোর্ড মিশন গির্জায়। মুনিয়ার মা এই গির্জায় সেবিকার কাজ করতেন। গির্জাটির সঙ্গে জীবনানন্দের সম্পর্কও ছিল নিবিড়। ছাত্রাবস্থায় অক্সফোর্ড মিশনের ছাত্রাবাসে থাকতেন তিনি। ফলে এখানকার ফাদার ও মাদারদের সঙ্গেও ছিল তার ঘনিষ্ঠতা। তবে এ গির্জার আছে একটি কেতাবি নাম এপিফানি উপাসনালয়। কিন্তু বরিশালবাসী আজও এটিকে চেনেন অক্সফোর্ড মিশনের ‘লাল গির্জা’ হিসেবেই। ১৯০৪ সালে তৈরি হওয়া গির্জাটির নির্মাণশৈলীতে রয়েছে নানা বৈচিত্র্য ও শিল্প সৌকর্য। ধানসিঁড়ি নদী থেকে একটু পূর্ব দিকে এগোলেই চোখে পড়বে পামগাছ ঘেরা অক্সফোর্ড মিশন। গাছের ফাঁক দিয়ে তাকালেই দেখা যাবে টেরাকোটা রঙের সুউচ্চ আর্চওয়ে চার্চ। এই চার্চেই মিলার প্রার্থনায় অংশ নেন ও ফাদারসহ অন্যদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। সেখানে অবস্থানরত বাংলাদেশের নাগরিকত্ব পাওয়া ব্রিটিশ নারী লুসি হল্টের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন রাষ্ট্রদূত। পরে অক্সফোর্ড বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন। এ সময় সেখানকার শিক্ষার্থীরা তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানায়।

এর আগে, দুপুর ১টার দিকে রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার বরিশালের ঐতিহ্যবাহী শ্রী শ্রী শংকর মঠ পরিদর্শনে যান। তিনি শংকর মঠ ট্রাস্ট কমিটি ও পূজা কমিটির নেতাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। এর আগে দেশের প্রথম কৃষি পর্যটন কেন্দ্র নামে খ্যাত ঝালকাঠি সদর উপজেলার ভীমরুলীতে জলেভাসা পেয়ারার হাট পরিদর্শন করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত।

ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী এবং পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানান। মার্কিন রাষ্ট্রদূত আল রবার্ট মিলার সাংবাদিকদের সঙ্গেও কথা বলেন। এ সময় তিনি উচ্ছ্বসিতভাবে ভাসমান হাটের প্রশংসা করেন। প্রকৃতি ও সাধারণ মানুষের প্রসংশাও করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত।

চাষিরা রাষ্ট্রদূতকে কাছে পেয়ে আপ্লুত হন। এ সময় রাষ্ট্রদূত মিলার চাষিদের জড়িয়ে ধরেন। মার্কিন রাষ্ট্রদূত সাংবাদিকদের সঙ্গেও কথা বলেন। হাটের অপার সম্ভাবনার কথা জানান। বাংলাদেশকে ভালো লাগার কথা জানান তিনি।

তিন দিনে সফরে গত বুধবার বরিশালে আসেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। পিরোজপুরের ভান্ডারিয়াসহ বরিশালের বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখছেন তিনি। প্রায় এক ঘণ্টা পরিদর্শন শেষে পরে রাষ্ট্রদূত বরিশালের উদ্দেশে রওনা হন।

 

"