ঢামেকেই হবে কার্ডিয়াক ও ভাসকুলার সার্জারি

স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চালু হলো কার্ডিয়াক এবং ভাসকুলার সার্জারি ইউনিট। যারা হৃদরোগে আক্রান্ত, হার্টে ফুটো, যাদের বাইপাস সার্জারি দরকার, তারা এখন থেকে এই ইউনিটে সেবা পাবেন। এই ইউনিটে যেসব চিকিৎসক, সেবিকা দায়িত্ব পালন করবেন, তাদের সবাইকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। গতকাল রোববার হাসপাতালের নতুন ভবনের তৃতীয় তলায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এই বিভাগের উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, শেখ ইউসুফ হারুন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনসহ অনেকে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে কার্ডিয়াক সার্জারি ও ভাসকুলার সার্জারি বিভাগ চালু করা হলো। আমাদের দেশে যারা হৃদরোগে আক্রান্ত, হার্টে ফুটো, যাদের বাইপাস সার্জারি দরকার, তারা এখন থেকে এই ইউনিটে সেবা পাবেন। এই ইউনিটে যেসব চিকিৎসক, সেবিকা দায়িত্ব পালন করবেন, তাদের সবাইকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, নামমাত্র মূল্যে দেশের মানুষ এখান থেকে সেবা পাবেন। সার্জারির জন্য হাসপাতাল সার্ভিস চার্জ, ডাক্তার চার্জ, হাসপাতালের ওষুধের চার্জ কিছুই দিতে হবে না। তবে আনুষঙ্গিক ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা ব্যয় হবে রোগীর। দৈনিক পাঁচ-সাতজন রোগীর সার্জারি করা সম্ভব হবে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পরিচালক ব্রি. জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন বলেন, এই বিভাগে অত্যাধুনিক কার্ডিয়াক ও ভাসকুলার সার্জারি অপারেশন থিয়েটার, ছয় শয্যার কার্ডিয়াক নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্র (আইসিইউ), ছয় শয্যার হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিট (এইচডিইউ), ১০ শয্যার পুরুষ ও নারী ওয়ার্ড রয়েছে। বিভাগটির জন্য ১০০ কেভি জেনারেটর, মেডিকেল গ্যাস সিস্টেম ও স্বয়ংসম্পূর্ণ একটি অটোক্লেভ সেন্টার রয়েছে।

 

"