হাটে হাঁড়ি ভাঙলেন বিচারক

নওয়াজ শরিফকে সাজা দিতে বাধ্য করা হয়েছে

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

দুর্নীতির মামলায় পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে সাজা দিতে বিচারককে বাধ্য করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ। নওয়াজ শরিফকে সাজা দিতে দেশটির জাতীয় তদন্ত সংস্থা ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টাবিলিটি ব্যুরোর (এনএবি) একজন বিচারকের দেওয়া স্বীকারোক্তির একটি ভিডিও প্রকাশ করেন মরিয়ম নওয়াজ। এতে ওই বিচারক স্বীকার করেছেন, নওয়াজ শরিফকে দুর্নীতির মামলায় সাজা দিতে তাকে (বিচারককে) ব্ল্যাকমেইল এবং বাধ্য করা হয়েছে। গত শনিবার লাহোরে পাকিস্তান মুসলিম লীগের-নওয়াজ (পিএমএল-এন) নেতাদের নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মরিয়ম নওয়াজ বলেন, তার বাবার বিচার প্রক্রিয়া আগাগোড়া সাজানো। সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কারাদ-াদেশ দেয়া দেশটির বিচারক আল আজিজিয়া পিএমএল-এনের সমর্থক নাসির ভাটের কাছে স্বীকার করেছেন, গুপ্ত

বাহিনীর সদস্যরা তাকে নওয়াজ শরিফের বিরুদ্ধে সাজা দিতে বাধ্য এবং ব্ল্যাকমেইল করেছে। বিচারকের দেয়া এই স্বীকারোক্তির ভিডিও প্রকাশ করেছেন মরিয়ম নওয়াজ।

এদিকে ইমরান খানের সরকার বলছে, এই ভিডিও সম্পাদনা করে প্রকাশ করা হয়েছে। একই সঙ্গে এটাকে দেশটির বিচার বিভাগের ওপর হামলা বলেও মন্তব্য করা হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী একটি দুর্নীতির মামলায় সাত বছরের কারাদ- ভোগ করেছেন। গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর থেকে তিনি লাহোরের কোট লাখপাত কারাগারে বন্দি। পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিতে নাম আসা সাবেক এই পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আরো দুটি দুর্নীতির মামলা বিচারাধীন। তবে নওয়াজ শরিফ এবং তার পরিবারের সদস্যরা বলছেন, তারা কোনো ধরনের দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত নন। রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

 

"