রোহিঙ্গাদের ঈদ মোনাজাতে দেশে ফেরার আকুতি

প্রকাশ : ০৮ জুন ২০১৯, ০০:০০

উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

উৎসবমুখর পরিবেশে ঈদুল ফিতর উদযাপন করেছেন মিয়ানমার থেকে উচ্ছেদ হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা। একযোগে সহস্রাধিক অস্থায়ী মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করেন তারা। পূর্ণ মর্যাদায় স্বদেশে ফেরত যাওয়ার আকুতি জানিয়ে বিশেষ মোনাজাত করেন তারা।

ঈদে উৎসবমুখর কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের ৩০টি রোহিঙ্গা আশ্রয়শিবির। আনন্দ ও উৎসবের মধ্যদিয়ে তারা বাংলাদেশে পালন করেছেন ঈদুল ফিতর। তবে রোহিঙ্গাদের চোখেমুখে দেশ ছেড়ে আসার বেদনা যেমন ছিল তেমন ছিল

আশ্রয় নেওয়া ভিন্ন দেশে স্বাধীনভাবে ধর্মীয় উৎসব পালনের আনন্দ। প্রশাসনের নির্দেশ অনুযায়ী ক্যাম্পের অস্থায়ী মসজিদগুলোতে একযোগে আদায় হয় ঈদের জামাত। নামাজ শেষে আয়োজিত মোনাজাতে ছিল মিয়ানমার সরকারের হাতে রোহিঙ্গাদের নির্যাতনের করুন আর্তনাদ। আর পূর্ণ নাগরিক মর্যাদায় নিজ দেশে ফেরত যাওয়ার আকুতি।

তবে ঈদে আশ্রয়শিবিরে সবচেয়ে বেশি আনন্দে মেতেছিল রোহিঙ্গা শিশুরা। সব ধরনের সহায়তা পাওয়ায় রোহিঙ্গারা সুন্দর ও উৎসবমুখর পরিবেশে ঈদুল ফিতর উদযাপন করছে বলে জানালেন আশ্রয়শিবিরের ক্যাম্প ইনচার্জ। কক্সবাজার উখিয়া কুতুপালং আশ্রয়শিবিরের ক্যাম্প ইনচার্জ রেজাউল করিম বলেন, ঈদ উৎসবের সব পণ্য আমরা তাদের কাছে পৌঁছেছি। তারা তাদের প্রয়োজনীয় পণ্য কিনে নিতে পারছে।

মিয়ানমার বাহিনীর নির্যাতনের মুখে পালিয়ে আসা ১১ লাখের অধিক রোহিঙ্গার বসবাস এখন বাংলাদেশে। মানবিক রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশ সরকার তাদের সব রকম সহায়তা দিয়ে আসছে। ফলে উৎসব ও আনন্দে ঈদ উদযাপন করতে পেরেছেন রোহিঙ্গারা।

 

"