ঘরের ভেতরে মায়ের লাশ : পুকুর পাড়ে ছেলের

প্রকাশ : ১৬ মে ২০১৯, ০০:০০

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরের নলডাঙ্গায় নিজ ঘর থেকে এক নারীর এবং বাড়ির পাশের পুকুরপাড় থেকে তার দুই বছরের ছেলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার ভোরে উপজেলার বাশিলা উত্তরপাড়া গ্রাম থেকে লাশ দুটি উদ্ধার করা হয়। শারমিন ওই এলাকার আমজাদ হোসেনের ছেলে মাহামুদুল হাসান মুন্নার স্ত্রী। মাহামুদুল ঢাকায় থেকে একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন।

নলডাঙ্গা থানার ওসি শফিকুর রহমান জানান, শারমিন সন্তানকে নিয়ে শ্বশুর-শাশুড়ির সঙ্গে থাকতেন। মঙ্গলবার রাতের খাবার খেয়ে শারমিন তার ছেলেকে নিয়ে তাদের ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। পরে সাহ্রির সময় বাড়ির লোকজন তাদের ডাকতে গিয়ে ঘরের ভেতর গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় শারমিনের লাশ পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় আবদুল্লাকে ঘরে না পেয়ে বাড়ির লোকজন ও প্রতিবেশীরা তাকে আশপাশে খুঁজতে শুরু করে। পরে বাড়ির পাশের একটি পুকুরপাড়ে আবদুল্লার লাশ পাড়ে থাকতে দেখে তারা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে তা উদ্ধার করে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, চুরি বা ডাকাতির উদ্দেশ্যে রাতে কে বা কারা শারমিনের ঘরে ঢোকে। এ সময় শারমিন দেখে ফেলায় তাকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয় এবং পালিয়ে যাওয়ার সময় আবদুল্লাকে পুকুরে ফেলে দেওয়া হয় বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘর থেকে কোনো কিছু লুট হয়েছে গেছে কিনা তা এখনো জানা যায়নি। ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

"