শিশু ধর্ষণের মামলায় একজনের ফাঁসি

প্রকাশ : ১৪ মে ২০১৯, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিশু তোফা মনিকে ধর্ষণের পর হত্যার মামলায় এক আসামিকে ফাঁসির দন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক আবদুল হালিম এই রায় দেন। ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম এরশাদুর রহমান। রায় ঘোষণার পর এরশাদুরকে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠিয়ে দেন আদালত। চট্টগ্রাম বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের সরকারি কৌঁসুলি মো. আইয়ুব খান বলেন, ২০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য শেষে আদালত আজ রায় ঘোষণা করেন। রায় শোনার জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে চট্টগ্রামে আসেন তোফার বাবা শফিকুল ইসলাম। রায় ঘোষণার পর প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, তিনি রায়ে সন্তুষ্ট। উচ্চ আদালতে এই রায় যেন বহাল থাকে। আসামির যেন ফাঁসি কার্যকর হয়। আর কোনো বাবাকে যেন এভাবে মেয়ে হারাতে না হয়। আদালত সূত্র জানায়, ২০১৬ সালের ২০ ডিসেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার কাঁচাইট গ্রামের সাত বছরের শিশু তোফা মনিকে বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণ করা হয়। পরে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে বাড়ির পাশের বেগুনখেতে ফেলা রাখা হয়। খোঁজাখুঁজি করে ঘটনার পর দিন খেত থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। তোফাকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় তার বাবা শফিকুল বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ অভিযোগপত্র দেয়।

 

"