নবীনগরে প্রাইমারি স্কুলে পলেস্তারা ধসে আহত ৫

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার একটি প্রাইমারি স্কুলে ১১ মাসের মাথায় ভবনের ছাদের পলেস্তারা খসে পড়ে দুজন শিক্ষক এবং তিনজন শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ওই স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

উপজেলার পশ্চিম ইউনিয়নের ফতেহ্পুর গ্রামে গতকাল মঙ্গলবার ফতেহপুর উত্তর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জরাজীর্ণ ভবনের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির ক্লাসরুমে পাঠদানকালে ছাদের পলেস্তারা ধসে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবগত করেছেন।

সূত্র জানায়, ১৯৯৫ সালে স্কুলের ভবনটি নির্মাণ করা হয়। ২০০৮ সালে এলজিইডি থেকে পশ্চিমাংশে দুটি ক্লাসরুমবিশিষ্ট একটি ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। সেটিতে চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির ক্লাস করা হয়। বাধ্য হয়ে জরাজীর্ণ ভবনে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণির কোমলমতি শিশুদের ক্লাস নিতে হয়। কোমলমতি এই শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা ভয়ে ভয়ে থাকি কখন ভবনের ছাদ ধসে আমাদের শরীরে পড়ে। স্কুলের সিনিয়র সহকারী শিক্ষক ফরিদা বেগম বলেন, ২৬ বছর ধরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এই জরাজীর্ণ ভবনে শিশুদের নিয়ে ক্লাস করে আসছি। এর আগেও অনেকবার এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। সিনিয়র শিক্ষক মনিরানি শীল বলেন, আমরাও ভয়ে ভয়ে থাকি। স্কুলের প্রধান শিক্ষক রাশিদা আক্তার বলেন, গত বছর এপ্রিল মাসের ২৮ তারিখেই প্রথম দুর্ঘটনাটি ঘটে। এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ঘটনা ঘটল। আমি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবগত করেছি। এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শরিফ রফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে ঝুঁকিপূর্ণ প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের তালিকা ওই সময়ই পাঠিয়েছিলাম, এখন আবার পাঠাব।

 

"