লঞ্চ ও বার্জডুবি

নিখোঁজ দুজনের লাশ উদ্ধার

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

বাগেরহাট প্রতিনিধি

ঝড়ের কবলে পড়ে মংলা বন্দরের পশুর চ্যানেলে লঞ্চ ও বার্জডুবির ঘটনায় নিখোঁজ তিন শ্রমিকের মধ্যে দুজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল লাশ দুটি উদ্ধার করে। তারা হলেন মংলা উপজেলার উত্তর মালগাছি গ্রামের মোসলেম শেখের ছেলে মো. শাহ আলম শেখ (৫০) ও খুলনার লবণচোরা এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে জুয়েল (৩৫)।

ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি মো. ফরিদ জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল বেসক্রিক এলাকায় ডুবে যাওয়া লঞ্চের ভেতর থেকে নিখোঁজ ক্রেন ড্রাইভার মো. শাহ আলমের (৪৫) লাশ উদ্ধার করে। এছাড়া ফায়ার সার্ভিসের অপর একটি দল পশুর চ্যানেলের হাড়বাড়িয়া এলাকা থেকে ভাসমান অবস্থায় আরো একটি লাশ উদ্ধার করেছে।

বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক মাসুদ সরদার বলেন, ডুবে যাওয়া বার্জ ও লঞ্চের নিখোঁজ তিনজনের মধ্যে দুজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এদের মধ্যে নিখোঁজ মো. শাহ আলম শেখ ও জুয়েলের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া বাগেরহাট সদর উপজেলার ডেমা ইউনিয়নের কাশেমপুর গ্রামের শেখ লতিফ নামে একজন শ্রমিক এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

এদিকে সাইডস্ক্যান প্রযুক্তি ব্যবহার করে আনুমানিক ২০ মিটার পানির নিচে লঞ্চ ও বার্জটির অবস্থান শনাক্ত করা হয়েছে। দুটি নৌযান উদ্ধারে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ অগ্রদূত ও তিস্তা তল্লাশি কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাতে ঝড়ের কবলে পড়ে পশুর চ্যানেলের বেসক্রিকে লঞ্চ ও বার্জডুবির ঘটনায় তিনজন শ্রমিক নিখোঁজ হন। পরে নিখোঁজ শ্রমিকদের উদ্ধার অভিযানে রয়েছে ফায়ার সার্ভিসের মংলা, খুলনা ও বাগেরহাটের তিনটি ইউনিটসহ কোস্টগার্ড, নৌবাহিনী, বন্দর কর্তৃপক্ষ ও স্টিভিডরস মেসার্স খুলনা ট্রেডার্স।

 

"