রেজিমেন্টাল কালার পেল ৬ সেনা ইউনিট

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

সম্মানসূচক রেজিমেন্টাল কালার পেল সেনাবাহিনীর ৬ ইউনিট। সেনাবাহিনীর সামরিক ঐতিহ্য অনুযায়ী যেকোনো ইউনিটের জন্য রেজিমেন্টাল কালার প্রাপ্তি অত্যন্ত গৌরবের বিষয়। গতকাল বৃহস্পতিবার সৈয়দপুর সেনানিবাসের ইএমই সেন্টার ও স্কুলে প্রধান অতিথি ও কর্নেল কমান্ড্যান্ট রেজিমেন্ট অব আর্টিলারি ও কর্নেল অব দি রেজিমেন্ট বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্ট হিসেবে সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সেনাবাহিনীর আর্টিলারি, ইঞ্জিনিয়ার ও বীর রেজিমেন্টের ৬টি ইউনিটকে এ কালার সম্মাননা তুলে দেন। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) থেকে গবেষণা কর্মকর্তা মুহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন এসব তথ্য জানিয়ে বলেন, দেশসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য সেনাবাহিনীর ছয়টি ইউনিটকে রেজিমেন্টাল কালার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৭, ২০, ৩২ ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারি, ১৯ মিডিয়াম রেজিমেন্ট আর্টিলারি, ৯ ইঞ্জিনিয়ার ব্যাটালিয়ন ও ১৫-বীর (সাপোর্ট ব্যাটালিয়ন) কালার প্যারেডে অংশগ্রহণ করে প্রধান অতিথির কাছ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে রেজিমেন্টাল পতাকা গ্রহণ করে।

রেজিমেন্টাল কালার প্যারেডের কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মতিউল ইসলাম মন্ডল। সেনাবাহিনীর কোর অব ইঞ্জিনিয়ার্সের কোনো ইউনিটকে এবারই প্রথম রেজিমেন্টাল কালার দেওয়া হলো। অনুষ্ঠানে ৬৬ পদাতিক ডিভিশন জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার রংপুর এরিয়া, উচ্চপদস্থ সামরিক ও অসামরিক কর্মকর্তা, রেজিমেন্টাল কালারপ্রাপ্ত ইউনিটগুলোর অবসরপ্রাপ্ত এবং চাকরিরত প্রাক্তন অধিনায়করা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে আইএসপিআর অপর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, সফররত ভারতের প্রতিরক্ষা সচিব সঞ্জয় মিত্র গতকাল বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর তিনি বাংলা একাডেমিতে যান। বাংলা একাডেমির সভাপতি অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। তিনি বাংলা একাডেমি পৌঁছলে ড. আনিসুজ্জামান তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান।

 

"