মাদক সেবনে বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে হত্যা!

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি

স্বামীকে মাদকসেবনে বাধা দেওয়ায় ঢাকায় স্ত্রীকে হত্যা করে লাশ দেশের বাড়ি গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে আনার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলার জলিরপাড় ইউনিয়নের তালবাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করেছে।

নিহতের পরিবারের লোকজন অভিযোগে জানান, দুই বছর আগে মুকসুদপুর উপজেলার তালবাড়ী গ্রামের সুকুমার মন্ডলের ছেলে সঞ্চয় মন্ডলের (২৩) সঙ্গে খুলনার সদর উপজেলার তুতপাড়া এলাকার আশীষ বিশ্বাসের মেয়ে প্রিয়ার (১৯) বিয়ে হয়। বিয়ের পাঁচ মাস পর জাহাজের ওয়েল্ডিংয়ের কাজের সুবাদে ঢাকার নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানার দাউদপুর এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন স্বামী-স্ত্রী। স্বামী সঞ্চয় মন্ডল প্রায়ই নেশা করে বাসায় আসতেন। এরই জেরে গত বুধবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে স্বামী সঞ্চয় শ্বাসরোধে তার স্ত্রীকে হত্যা করে গাড়ি ভাড়া করে নিজেই দেশের বাড়িতে নিয়ে আসেন।

নিহতের মা বেলেকা বিশ্বাস জানান, বুধবার রাত ৮টার দিকে আমার মেয়ে প্রিয়া মোবাইলে আমি আর বাঁচব না বলে শেষ কথা বলে। এ সময় আমার মেয়ের হাত থেকে মোবাইল কেড়ে নেয় জামাই সঞ্চয় মন্ডল। এরপর তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। বৃহস্পতিবার আমার মেয়ের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে তার শ্বশুরবাড়ি আসি। আমি এই হত্যার বিচার চাই। নিহতের মামা পূর্ণ শিকদার জানান, নেশাগ্রস্ত ভাগ্নিজামাই সঞ্চয় নিজেই তার স্ত্রীকে হত্যা করে গাড়ি ভাড়া করে দেশের বাড়ি নিয়ে আসে। এ হত্যার বিচার চাই। এদিকে সঞ্চয় মন্ডল জানান, আমি আমার স্ত্রীকে হত্যা করিনি। সে আত্মহত্যা করেছে। মুকসুদপুরের সিন্দিয়াঘাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মহিদুল ইসলাম জানান, মৃত্যুর অভিযোগ পেয়েছি। লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

 

"