নাটোরে ছাত্রলীগকর্মী মোয়াজ্জেম হত্যায় ৪ জনের প্রাণদণ্ড

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরের লালপুরে ১৭ বছর আগে ছাত্রলীগকর্মী মোয়াজ্জেম হোসেন খান্নাসকে হত্যার দায়ে চারজনের ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত। এছাড়া এক আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ সাইফুর রহমান সিদ্দিক এ রায় দেন।

সর্বোচ্চ সাজার আদেশ পাওয়া আসামিরা হলো লালপুর উপজেলার বাহাদুপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের দুই ছেলে শামীম ও সুজন, একই গ্রামের আবদুল মালেকের ছেলে আবদুল মতিন ও আবদুল খালেকের ছেলে আবদুস শুকুর।

বাহাদুপুর গ্রামের ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে শান্তকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক। দণ্ডিত পাঁচ আসামির প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদ- দেওয়া হয়েছে। এ আদালতের পিপি মাসুদ হাসান জানান, অপরাধে সংশ্লিষ্টতা প্রমাণিত না হওয়ায় এ মামলার আসামিদের মধ্যে ১৩ জনকে খালাস দিয়েছেন বিচারক।

দণ্ডিত আসামিদের মধ্যে শামীম ও শুকুর রায় ঘোষণার সময় আদালতে হাজির ছিল; বাকিরা পলাতক।

মামলার বিবরণে জানা যায়, লালপুর উপজেলার হয়বতপুর গ্রামের আবদুস শুকুর মৃধার ছেলে মোয়াজ্জেম হোসেন খান্নাস রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিল। ২০০২ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি বাড়িতে হামলা চালিয়ে এই ছাত্রলীগকর্মীকে হত্যা করে আসামিরা। এ মামলার এজাহারে মোট ২৩ জনকে আসামি করা হলেও অভিযোগ গঠনের পর্যায়ে পাঁচজনের নাম বাদ দেওয়া হয় বলে পিপি মাসুদ হাসান জানান।

 

"