রাজধানীসহ চার জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৪

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

রাজধানীর মোহাম্মদপুর, চট্টগ্রামের বাঁশখালী, মেহেরপুরের গাংনী? ও কক্সবাজারের টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে চারজন নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবারের এসব ঘটনায় মাদকদ্রব্য, দেশীয় অস্ত্রসহ ডাকাতির বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। প্রতিনিধি ও সংবাদদাতাদের পাঠানো খবরে বিস্তারিতÑ

নিজস্ব প্রতিবেদক জানান, রাজধানীর মোহাম্মদপুরে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নবী হোসেন (৪৭) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার ভোরে মোহাম্মদপুর থানার ঢাকা উদ্যান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। র‌্যাব-২ এর কোম্পানি কমান্ডার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী জানান, ঢাকা উদ্যান এলাকায় তল্লাশির সময় র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি করে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছুড়লে মাদক ব্যবসায়ী নবী গুলিবিদ্ধ হন। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা জানান, উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নের চেমটখালী এলাকায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দেলোয়ার হোসেন (৩৫) নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছেন। দেলোয়ার ইউনিয়নের খুদুকখালী এলাকার নুরুল আলমের ছেলে। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে ওই ডাকাত গুলিবর্ষণ করলে র‌্যাবও পাল্টা গুলি বিনিময় করে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। বাঁশখালী থানার এসআই আতিকুল ইসলাম জানান, নিহত ডাকাতের বিরুদ্ধে বাঁশখালী থানায় হত্যা, ডাকাতিসহ অসংখ্য মামলা রয়েছে।

গাংনী (মেহেরপুর) প্রতিনিধি জানান, গাংনীতে দুই পক্ষের গোলাগু?লি?তে ফজলুল হক ফজু (৪৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হ?য়ে?ছেন। বৃহস্পতিবার ভোরে উপ?জেলার হাড়াভাঙ্গা গ্রা?মে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থে?কে অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার ক?রে?ছে। ?নিহত মাদক ব্যবসায়ী ফজলুল হক ফজু কা?জীপুর খন্দকার পাড়ার সামছুল হকের ছেলে। পীরতলা পু?লিশ ক্যা?ম্প ইনচার্জ এসআই অজয় কুমার জানান, হাড়াভাঙ্গা তিনজোল মাঠে গোলাগু?লির খবর পেয়ে পু?লি?শের ক?য়েক?টি দল ঘটনাস্থ?লে যায়। পু?লি?শের উপস্থি?তি টের পে?য়ে দুষ্কৃতিকারীরা পালি?য়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে গু?লিবিদ্ধ একজ?নের লাশ ও এক?টি এল?জি শাটারগান এবং এক কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি জানান, কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের অবৈধ অস্ত্র ও মাদকবিরোধী অভিযানে এক মাদক কারবাার নিহত হয়েছেন। এ সময় তিনজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে দেশীয় অস্ত্র, বুলেট ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, আটক মাদক কারবারি ও অস্ত্র ব্যবসায়ী কাশেমের স্বীকারোক্তি মতে তাদের আস্তানায় অস্ত্র এবং মাদক উদ্ধার অভিযানে গেলে তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। এতে তিনজন পুলিশ সদস্য আহত হন। পুলিশও পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে দুপক্ষের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে এলজি, তাজা কার্তুজ, ইয়াবাসহ গুলিবিদ্ধ কাশেমকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হলে মারা যান। লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

"