পদ্মায় পাইল ড্রাইভ ২০০ ছাড়াল

প্রকাশ : ১৬ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে পদ্মা পাড়ি দেওয়ার স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নেওয়ার পথে। দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে প্রকল্পের কাজ। নদীতে যে ২৬২টি পাইল ড্রাইভ বসবে তার মধ্যে ২০৯টি পাইল ড্রাইভের কাজ শেষ হয়েছে। বাকি আছে ৫৩টি পাইল ড্রাইভ। সেতুর ৪২টি পিলারের মধ্যে ২১টি পিলারের কাজ সম্পন্ন। মোট ২৯৪টি পাইলের মধ্যে ২৪১টি পাইল ড্রাইভ সম্পন্ন। আটটি স্প্যান (সুপার স্ট্রাকচার) বসিয়ে পুরো পদ্মা সেতু এখন ১২০০ মিটার দৃশ্যমান। তবে গত আট দিন ধরে তিনটি হ্যামার বন্ধ থাকায় সাময়িক বন্ধ আছে পাইল ড্রাইভিংয়ের কাজ। গত বৃহস্পতিবার পদ্মা সেতুর প্রকৌশলী সূত্রে জানা যায়, সেতুর ৬, ৭, ৮, ১০নং পিলারের পাইল ড্রাইভের অর্ধেক কাজ বাকি। তবে ১১, ২৬, ২৭, ৩০নং পিলারের পাইল ড্রাইভের কাজ এখনো শুরু হয়নি। চলতি মাসের মধ্যে ২০, ২২, ২৩নং পিলারের কাজ সম্পন্ন হওয়ার কথা আছে। এছাড়া এ মাসেই ৩৫ ও ৩৪নং পিলারের ওপর নবম স্প্যানটি বসাতে প্রকৌশলীরা পরিকল্পনা করছেন। স্প্যান বসানোর জন্য প্রস্তুত আছে ৩৩নং পিলারও। পেইন্টিং শেষে ছয়টি স্প্যান মাওয়া কন্সট্রাকশন ইয়ার্ডে প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে। সেতুর ৩৪ ও ৩৫নং পিলারের ওপর নবম স্প্যানটি বসানো হবে। সেতুর নকশা জটিলতার পিলারগুলোতে স্ক্রিন গ্রাউটিং পদ্ধতি অবলম্বন করে পাইল ড্রাইভিং করা হচ্ছে। এ পদ্ধতিতে ১৮টি পাইল বসে গেছে। আট দিন ধরে তিনটি হ্যামার নষ্ট থাকায় বন্ধ আছে পাইলিং কাজ। ফলে পাইলিংয়ের কাজের গতিতে বিঘ্ন ঘটেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রকৌশলী বলেন, পদ্মা সেতুর ২১টি পিলারের কাজ সম্পন্ন হয়েছে, এগুলো হলোÑ ২, ৩, ৪, ৫, ১৩, ১৪, ১৫, ১৬, ১৭, ১৮, ২১, ৩৩, ৩৪, ৩৫, ৩৬, ৩৭, ৩৮, ৩৯, ৪০, ৪১, ৪২। চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহের হিসাব অনুযায়ী জাজিরা প্রান্তে স্প্যানগুলোতে ১৯২টি রেলওয়ে সø্যাব বসেছে। এছাড়া সেতুর ৬, ৭, ৮, ১০, ১১, ২৬, ২৭, ২৯, ৩০, ৩১, ৩২নং পিলারগুলোর পাইল ড্রাইভিংয়ের ক্ষেত্রে স্ক্রিন গ্রাউটিং পদ্ধতি ব্যবহৃত হচ্ছে। ছয়টি করে পাইল ড্রাইভ হবে ১৮টি পিলারে এবং সাতটি করে পাইল ড্রাইভ হবে ২২টি পিলারে। মাওয়া কন্সট্রাকশন ইয়ার্ডে ১৩টি স্প্যানের মধ্যে ৯টি স্প্যান ফিটিংয়ের কাজ চলমান আছে।

মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদীশাসনের কাজ করছে চীনেরই আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতুতে ৪২টি পিলারের ওপর বসবে ৪১টি স্প্যান। স্প্যান বসানো হয়েছে আটটি, বাকি আছে ৩৩টি। পদ্মা বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো। জাজিরা প্রান্তে সেতুর ৩৫, ৩৬, ৩৭, ৩৮, ৩৯, ৪০, ৪১, ৪২নং পিলারে সাতটি স্প্যান ও মাওয়া প্রান্তে ৫ ও ৬নং পিলারে একটি অস্থায়ী স্প্যান বসানো হয়েছে।

 

"