নদীতীর দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ চলবে : উপমন্ত্রী

প্রকাশ : ১৫ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ও নির্দেশনায় বর্তমান সরকার বাংলাদেশের নদ-নদীগুলো দখলমুক্ত করতে বদ্ধপরিকর। তাই নদীতীরের উচ্ছেদ কার্যক্রম চলমান থাকবে। সে লক্ষ্যে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় ও নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়সহ সরকারের সংশ্লিষ্ট অন্য মন্ত্রণালয় ও দফতর সমন্বিতভাবে বুড়িগঙ্গা-কর্ণফুলী তীরবর্তী দখলদারদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন কর্তৃক আয়োজিত এক নাগরিক সমাবেশে পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম এ কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, এরই মধ্যে আমরা সরেজমিন দেশের জলাবদ্ধ ও ভাঙনকবলিত এলাকা পরিদর্শন শুরু করেছি। ভাঙনকবলিত এলাকাগুলো চিহ্নিত করে ভাঙন প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণে আমরা কাজ করছি। এ সময় বর্ষা মৌসুমে দেশবাসীকে জলাবদ্ধতা থেকে মুক্ত করতে তার মন্ত্রণালয় নিরলস কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান তিনি। নদী রক্ষায় সরকারি কর্মকান্ডের পাশাপাশি জনগণকে নিজ নিজ দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, সমাজের সচেতনরা নদী দখলদারদের স্থানীয়ভাবে প্রতিরোধ করুন ও নদীতীরের উচ্ছেদ কার্যক্রমে সরকারকে সহযোগিতা করুন।

নদীতীর দখলমুক্তকরণ কার্যক্রমে সাংবাদিকদের ভূমিকার প্রশংসা করে তিনি বলেন, আপনাদের প্রকাশিত ও প্রচারিত সংবাদের ভিত্তিতে আমরা সহজেই এসব দখলদার ও দূষণকারীদের চিহ্নিত করতে পেরেছি এবং পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় এসব সংবাদের ভিত্তিতে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নিচ্ছে।

সাংবাদিকদের এই প্রচেষ্টা আগামীদিনেও অব্যাহত রাখতে হবে বলে জানান তিনি। জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন আয়োজিত এই নাগরিক সমাবেশে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক আনোয়ার সাদাত, সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. বাচ্চু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. আনোয়ার হোসেন, যুগ্ম আন্তর্জাতিক সম্পাদক মনির মুন্সী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

 

"