জিয়া নির্বাচনে কারচুপি চালু করেন : আমু

প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

সংসদ প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু বলেছেন, জিয়াউর রহমানই এদেশে ক্ষমতা দখল ও নির্বাচনে কারচুপির সংস্কৃতি চালু করেন। তার সময়েই ব্যালট বাক্স হাইজাকের সংস্কৃতি চালু হয়। আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের আরেক সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, এবারের নির্বাচনে আমাদের ইশহেতারের সেøাগান ছিল ‘আমার গ্রাম আমার শহর’। আমি বিশ্বাস করি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে এটাও বাস্তবায়ন হবে। এখনই আমি নিজেই নিজের এলাকায় গ্রামগুলোর দ্রুত পাল্টে যাওয়া দেখে অবাক হয়ে যাই। সোমবার সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে তারা এসব কথা বলেন।

আমির হোসেন আমু বলেন, নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে বিএনপি নানা কূটকৌশল অবলম্বন করছে। ২০১৪ সালে তাদের নির্বাচন বানচালের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।

তোফায়েল : আমুর আগে দেওয়া বক্তব্যে তোফায়েল আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যদিয়ে দেশকে পেছনের দিকে নিয়ে যাওয়া হয়। স্বাধীনতার চেতনা ধুলিস্যাৎ করার চেষ্টা করা হয়েছিল। শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে আজ বিশ্ব মানচিত্রে আত্মমর্যাদাশীল রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। তিনি বলেন, এবার যারা মন্ত্রী হয়েছেন তারা সবাই আদর্শবান, আমি মন থেকে তাদের সফলতা কামনা করি। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, একদিকে বাংলার স্বাধীনতা, আরেকদিকে মানুষের মুক্তি প্রয়োজন। সেদিন বেশি দূরে নয় যেদিন বাংলাদেশ হবে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত। গ্রামের উন্নয়ন দেখে এখন অবাক হয়ে যাই।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, আমরা এখনও টকশোসহ বিভিন্ন স্থানে কাউকে কাউকে বিএনপি-জামায়াত ও আওয়ামী লীগকে একই পাল্লায় মাপার চেষ্টা করতে শুনি। কিন্তু তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত মানুষকে আগুনে পুড়ে মারে। আর শেখ হাসিনা তাদের চিকিৎসার জন্য বার্ন হাসপাতাল গড়েন।

জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী (লিটন চৌধুরী) বলেছেন, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের চলমান কার্যক্রমে দেশবাসীর মনে আশার সঞ্চার হয়েছে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মও এর সুফল ভোগ করবে।

 

"