হনুমানটির জীবন বিপন্ন

প্রকাশ : ১০ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

খাবারের খোঁজে দলছুট হয়ে এসেছে একটি হনুমান। এটা বিরল প্রজাতির এবং সচরাচর এ ধরনের হনুমানের দেখা মেলে না। এক মাস ধরে ঈশ্বরগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা পার হয়ে চার দিন ধরে নান্দাইলের খামারগাঁও গ্রামের জঙ্গলে অবস্থান করছিল। গত শুক্রবার বিকেলে হনুমানটিকে শিকলে বেঁধে রেখেছে এলাকার লোকজন। বিষয়টি জানলেও উদ্ধারে কোনো ধরনের আগ্রহ দেখায়নি সংশ্লিষ্টরা। এ অবস্থায় যেকোনো সময় হনুমানটি মারা যেতে পারে। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, এই বিরল প্রাণীটিকে দ্রুত উদ্ধার না করলে যেকোনো সময় দুষ্টু ছেলেদের ইট-পাটকেলে মারা যেতে পারে। এটির জীবন বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে।

গতকাল শনিবার ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের চারকান্দা গ্রামের আমিদ উদ্দিনের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, হনুমানটিকে শিকলে বেঁধে রাখা হয়েছে। আল-আমীন নামে এক যুবক জানান, গত চার দিন ধরে এলাকার খামারগাঁও গ্রামের একটি জঙ্গলে প্রথম দেখা মেলে হনুমানটির। এই খবরে উৎসুক জনতা হনুমানটিকে দেখতে ভিড় জমায়। গাছের উঁচু ডালে থাকলে উৎসুক অনেকেই ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করায় সব সময় রাগান্বিত ছিল হনুমানটি। ক্ষিপ্ত হয়ে এদিক-সেদিক দৌড়াদৌড়ি করায় এলাকার লোকজনের মাঝে এক ধরনের আতঙ্ক বিরাজ করছিল। এ অবস্থায় উৎসুক লোকজনের দেওয়া খাবার খেতে নিচে নেমে আসলে কৌশলে আটকিয়ে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়। স্থানীয়রা জানান, হনুমানটি কোনো মানুষের ক্ষতি করেনি। কিন্তু মানুষ দেখলে হনুমানটি সব সময় ভয়ে থাকে। তবে হনুমানটি মানুষের আনন্দের খোরাক হয়েছে। নান্দাইল উপজেলার বন কর্মকর্তা এ বিষয়ে দীপঙ্কর রায় বলেন, হনুমানটিকে উদ্ধার করার চেষ্টা চলছে।

 

"