অবৈধ সম্পদ অর্জন

আব্বাস দম্পতির বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ২০ মার্চ

প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

আদালত প্রতিবেদক
ama ami

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস এবং তার স্ত্রী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের বিরুদ্ধে দুদকের করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ২০ মার্চ ঠিক করে দিয়েছেন আদালত। গতকাল রোববার মামলাটির তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল। মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা

প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকা মহানগর হাকিম সাইফুজ্জামান শরীফ নতুন এ দিন ঠিক করেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, আফরোজা আব্বাসের নামে যে সম্পদের বর্ণনা পাওয়া গেছে তা আসলে তার স্বামী মির্জা আব্বাসের সহায়তায় অবৈধ উৎস থেকে অর্জিত। মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজার নামে ২০ কোটি ৭৬ লাখ ৯২ হাজার ৩৬৩ টাকার অবৈধ সম্পদ পাওয়া গেছে। আয়কর নথিতে তিনি নিজেকে একজন হস্তশিল্প ব্যবসায়ী হিসেবে বর্ণনা করেছেন। কিন্তু পাসপোর্টের তথ্যে বলা হয়েছে, তিনি একজন গৃহিণী। নিজের আয়ের কোনো বৈধ উৎস তার নেই।

আফরোজা আব্বাস অবৈধভাবে অর্জিত সম্পদ হস্তান্তর, রূপান্তর ও অবস্থান গোপন করে অসৎ উদ্দেশ্যে দালিলিক প্রমাণবিহীন ভুয়া ঋণ হিসেবে দেখিয়েছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে মামলায়।

মামলার অভিযোগে আরো বলা হয়েছে, ১৯৯১ সালের আগে মির্জা আব্বাসের উল্লেখযোগ্য কোনো আয় ছিল না। ঢাকা সিটি করপোরেশনের মেয়র এবং গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী হওয়ার সুবাদে ঘুষ ও দুর্নীতির মাধ্যমে তিনি সম্পদের মালিক হন। এসব অভিযোগে দুদক আইনের ২৭(১) ধারা, দন্ডবিধির ১০৯ ধারা এবং মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ১৩ ধারায় আব্বাস দম্পতির বিরুদ্ধে ৭ জানুয়ারি দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক সালাহউদ্দিন শাহজাহানপুর থানায় এ মামলা করেন।

"