কলেজছাত্রকে গলা কেটে ও ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশ : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক
ama ami

বরিশালে কলেজছাত্রকে গলা কেটে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। এছাড়া নওগাঁর পোরশায় এক ফেরিওয়ালাকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন এক ব্যবসায়ী। প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্ট :

বরিশাল : বরিশাল উজিরপুরে ইমরান হোসেন হাওলাদার (২৪) নামে এক কলেজছাত্রকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল শনিবার সকালে নিজ বাড়ির পাশের একটি পরিত্যক্ত জমি থেকে তার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত ইমরান উপজেলার জল্লা ইউনিয়নের মুনসির তালুক গ্রামের সরোয়ার হোসেন হাওলাদারের ছেলে। তিনি স্থানীয় ভবানীপুর হাজী তাহের উদ্দিন ডিগ্রি কলেজ থেকে এবার ডিগ্রি শেষ বর্ষের পরীক্ষা দিয়েছেন।

উজিরপুর মডেল থানার ওসি শিশির কুমার পাল স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বলেন, ইমরানের গলায় ছুরি দিয়ে কোপানোর চিহ্ন এবং ডান হাতের কব্জি শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন ছিল। এছাড়া শরীরের অনেক অংশে রক্তাক্ত জখম রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছেÑ তাকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। তবে কে বা কারা করেছে তা এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত প্রশাসনের কেউ তথ্য দিতে পারেনি।

তিনি আরো জানান, ইমরান গত শুক্রবার রাতে তার চাচা আবুল কালাম আজাদের ঘরে বিপিএলের খেলা দেখছিলেন। বিরতির সময় ভাত খেতে নিজ ঘরে যান। এ সময় তার মোবাইল নম্বরে কেউ একজন ফোন করে। ফোনে কথা বলেই ঘর থেকে বেরিয়ে যান ইমরান। তখন থেকেই নিখোঁজ ছিলেন তিনি। ওসি শিশির কুমার পাল জানান, ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জড়িতদের সন্ধান ও আটকের অভিযান চলছে।

নওগাঁ : নওগাঁর পোরশায় পাওনা মাত্র ৩০ টাকা না দেওয়ায় ফেরিওয়ালা ইউনুছ আলী চেমুকে (৪৮) লাঠির আঘাতে হত্যা করা হয়েছে। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার সুতলীবাজারে এ ঘটনা ঘটে। ঘাতক সুতা ব্যবসায়ী মফিজ উদ্দিনকে (৬২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহত ইউনুছ আলী উপজেলার সোমনগর দক্ষিণপাড়ার মৃত আবদুল মান্নানের ছেলে। গ্রেফতারকৃত মফিজ উদ্দিন একই উপজেলার বানমহিন গ্রামের মৃত অছির উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সুতলীবাজারে সুতা ব্যবসায়ী মফিজ উদ্দিনের কাছ থেকে সুতা কেনেন ফেরিওয়ালা ইউনুছ। ব্যবসায়ীক লেনদেনের মাঝে মধ্যে কিছু টাকা বাকি থাকে। তিন-চার দিনে আগে মফিজের কাছ থেকে কয়েকশ’ টাকার সুতা নেন ইউনুছ আলী। বাকি ছিল মাত্র ৩০ টাকা। গত শুক্রবার বিকেলে সুতলীবাজারে পাওনা ৩০ টাকা চান মফিজ উদ্দিন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মফিজ উদ্দিন লাঠি দিয়ে ইউনুছের মাথায় আঘাত করেন। এতে ইউনুস অজ্ঞান হয়ে পড়েন। পরে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

পোরশা থানার ওসি শাহিনুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়েছে। হত্যার অভিযোগে মফিজ উদ্দিনকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

"