চট্টগ্রাম বইমেলা উদ্বোধন কাল

প্রকাশ : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো
ama ami

সম্মিলিত বইমেলা চট্টগ্রামবাসীর আকাক্সক্ষার প্রতিফলন বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে এমএ আজিজ স্টেডিয়ামের বইমেলা প্রাঙ্গণ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। বইমেলা উদ্বোধন হবে আগামীকাল রোববার।

মেয়র জানান, এবার ৮০ হাজার ৩০০ বর্গফুট জুড়ে অমর একুশে বইমেলায় ঢাকা ও চট্টগ্রামের প্রকাশকদের ১১০টি স্টল থাকবে। রোববার বিকেল ৩টায় বইমেলা উদ্বোধন করবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা ও ছুটির দিনে সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলায় সিটি

করপোরেশনের নিরাপত্তার পাশাপাশি পুলিশের নিরাপত্তা থাকবে। পাশাপাশি সম্পূর্ণ মেলা শতভাগ সিসিটিভির আওতায় থাকবে।

মেলাকে আকর্ষণীয় করার লক্ষ্যে আরো থাকবে চট্টগ্রামের সাংস্কৃতিককর্মীদের নিয়ে বিভিন্ন উপপরিষদ গঠন ও তাদের সহযোগিতায় পরিবেশিত হবে প্রতিদিনের অনুষ্ঠানমালা। মেলার এবার রবীন্দ্র-নজরুল উৎসব, বসন্ত বরণ উৎসব, ভালোবাসা দিবস, আঞ্চলিক ও লালনগীতি, মাইজ ভা-ারি সংগীত, লোকসংগীতসহ স্থানীয় সংগঠনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান আয়োজন থাকবে। মেলা পরিষদের কক্ষ, হেলথ কর্নার, ফায়ার সাভির্স, অভ্যর্থনা কক্ষ, মিডিয়া বুথ, বিটিবি বুথ, এটিএম ব্যাংকের বুথ, সার্বক্ষণিক সেবা ব্যবস্থার জন্য সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন বিভাগের সার্ভিস বুথ থাকবে। মেলা প্রাঙ্গণকে ধুলাবালিমুক্ত পরিবেশে পাঠক-দর্শক মেলা উপভোগ যোগ্য করার লক্ষ্যে ইটের ছাদরে সমগ্র বইমেলা ঢাকা থাকবে। এরই মধ্যে এ কাজ সমাপ্তির পর্যায়ে।

মেয়র বলেন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করার জন্য মাঠসংলগ্ন আলাদা মঞ্চ করা হয়েছে। যাতে বইমেলার বিঘœ না ঘটে। এবারের বইমেলার জন্য চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন প্রাথমিকভাবে ২১ লাখ ৪০ হাজার টাকা বাজেট নির্ধারণ করেছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বইমেলার আহ্বায়ক নাজমুল হক ডিউক, ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাছান মুরাদ বিপ্লব, চট্টগ্রাম সৃজনশীল প্রকাশক পরিষদের আহ্বায়ক শাহ আলম নিপু, বলাকা প্রকাশনের প্রকাশক জামাল উদ্দিন, চসিকের প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া।

 

"