জুয়েলারি ব্যবসার আড়ালে ডাকাতি

গাজীপুরে ডাকাত চক্রের ৬ সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুরের বিভিন্নস্থানে ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। র‌্যাবের দাবি, গ্রেফতাররা আন্তজেলা ডাকাত চক্রের সদস্য। প্রদীপ পোদ্দার এই ডাকাত চক্রের মূল হোতা। এ সময় তাদের কাছ থেকে স্বর্ণালংকার ও টাকা জব্দ করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে র‌্যাব-১-এর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেফতাররা হলো শরীয়তপুরের পালং থানার প্রদীপ পোদ্দার, গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার টোকনয়নপুর এলাকার মো. জাকির হোসেন, চাঁদপুরের হাইমচর থানার মজোমপুর এলাকার মো. রাসেল, গাজীপুরের কালীগঞ্জ থানার গলান মাইজপাড়া এলাকার মো. দুলাল হোসেন, তার স্ত্রী বাগেরহাটের চিতলমারী থানার বড়বাড়িয়া কোকিলা বেগম ওরফে প্রেরণা, মা হাজেরা বেগম ওরফে আজান।

আসামিদের কাছ থেকে ৬২.৭৫ গ্রাম স্বর্ণালংকার, ৪টি মোবাইল ফোন সেট, নগদ ১১ হাজার টাকা, স্বর্ণ যাচাই কেমিক্যালের ২ বোতল, সিটি গোল্ডের চুড়ি-১১ জোড়া, কানের দুল ৭ জোড়া, নেকলেস ২টি ও ১টি কষ্টিপাথর উদ্ধার করা হয়। আসামিদের বিবরণ থেকে জানা যায়, ডাকাত চক্রের মূল হোতা প্রদীপ পোদ্দার টঙ্গীর আফতাব প্লাজার দোতলায় পোদ্দার জুয়েলারি স্টোরের কর্ণধার। তার ছত্রছায়ায় একাধিক চক্র আছে যারা ডাকাতির মালামাল কমমূল্যে তার কাছে বিক্রি করে থাকে। এ ছাড়া মো. দুলাল হোসেন কাপড় ফেরি করে চলে। সে গাজীপুর ও উত্তরার বিভিন্নস্থানে খুচরা কাপড় ব্যবসায়ী। সে কাপড় বিক্রির পাশাপাশি বিভিন্ন বাসার বাসিন্দাদের গতিবিধি লক্ষ রাখে। পরে সুযোগমতো ডাকাতি করে। সে ১০-১২ বছর ধরে তার গ্রুপের অন্যদের সহযোগিতায় ডাকাতি করে আসছে। বেশ কিছুদিন আগে টঙ্গীতে একটি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির ভিডিও ফুটেজে আসামি দুলালকে দেখা যায়। তিনটি মামলায় বিভিন্ন মেয়াদে মোট ২ বছর ৬ মাস কারাভোগ করেছে সে। কোকিলা বেগম ওরফে প্রেরণা দুলাল হোসেনের স্ত্রী এবং হাজেরা বেগম তার মা। কোকিলা ও হাজেরা বেগম উভয়ে দুলাল হোসেনের অপরাধ কাজের সহযোগী। তারা দুলাল হোসেনের সব অপরাধ সমর্থন করে এবং ডাকাতির মাল গোপনে নিজেদের কাছে রাখে।

র‌্যাব জানায়, সম্প্রতি ঢাকা ও গাজীপুরে একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল বিভিন্ন বাসাবাড়ি ও স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির পরিকল্পনা করছে এবং কয়েকটি জায়গায় ডাকাতি করছে বলেও জানা যায়। এ বিষয়ে র‌্যাব-১ ছায়াতদন্ত শুরু করে এবং গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ায়। এরই ধারাবাহিকতায় গত বৃহস্পতিবার রাতে গাজীপুরের বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে ওই ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়।

"