ইসিকে ‘হাইকোর্ট দেখিয়ে’ ভোটের লড়াইয়ে ফিরলেন হিরো আলম

প্রকাশ : ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আদালত প্রতিবেদক

বগুড়ার আলোচিত স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলমের মনোনয়নপত্র গ্রহণের জন্য নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল সোমবার রুলসহ এ আদেশ দেন।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় একাদশ সংসদ নির্বাচনে লড়তে বগুড়া-৪ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন হিরো আলম। কিন্তু গত ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় জেলার রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ তার মনোনয়নপত্রটি বাতিল ঘোষণা করেন। পরে তিনি এর বিরুদ্ধে আপিল করলে গত ৬ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশন তা খারিজ করে দেয়। নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে গত রোববার হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন হিরো আলম। ওই রিট আবেদনের শুনানি নিয়েই আদালত তার মনোনয়নপত্র গ্রহণের জন্য নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছে।

হিরো আলমের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন মো. কাউছার আলী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেছুর রহমান। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মোট ভোটারের এক শতাংশ স্বাক্ষর মনোনয়পত্র দাখিলের সময় বিধান মতো হিরো আলমও তা জমা দেন। পরে কিছু স্বাক্ষর জালের অভিযোগে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। হিরো আলমের আইনজীবী কাউছার আলী সাংবাদিকদের বলেন, ‘হিরো আলমের প্রার্থিতা বাতিলে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে তার বৈধ মনোনয়নপত্র গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছে। তার মানে হিরো আলমের মনোনয়নপত্র বৈধ। তিনি নির্বাচন করতে পারবেন।’ আদেশের পর হিরো আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি এখন খুব খুশি। হাইকোর্টে যে ন্যায় বিচার পাওয়া যায় তা প্রমাণ হলো। ইসি যে বলছিল আমার ভোটার তালিকা ভুয়া তা আজ মিথ্যা প্রমাণ হয়েছে। ইসিকে হাইকোর্ট দেখিয়ে দিলাম।’ হিরো আলম বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে প্রথমে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন চেয়েছিলেন। তা না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বহু ভিডিও ছেড়ে আলোচনায় উঠে আসেন হিরো আলম।

"