নারায়ণগঞ্জে দীর্ঘ হচ্ছে লাশের হিসাব : চার মাসে অর্ধশতাধিক

প্রকাশ : ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আল-আমিন মিন্টু

প্রায় চার মাসে জ্ঞাত-অজ্ঞাত মিলে অর্ধশতাধিক লাশের মিছিল দেখেছে নারায়ণগঞ্জবাসী। যাদের পরিচয় পাওয়া গেছে, তাদের আবার অনেকের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের বাইরের জেলায়। নারায়ণগঞ্জ জেলার পাঁচ উপজেলার সাত থানায় প্রায় দিনই পাওয়া যাচ্ছে লাশ। বিভিন্ন সময় পুলিশ, র‌্যাব, গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) অপহৃতকে উদ্ধারে সক্ষম হলেও তা দমন করতে সফলতা কম বলে মনে করছেন সচেতন মহল। আবার পারিবারিক কলহের জের ধরে কেউ কেউ আত্মহত্যর পথ বেছে নেন। অনেকে মাদক ব্যবসায় বাধা দিতে গিয়েও খুন হন। ধর্ষণের পরে হত্যা, নিখোঁজ, খুন, শ্বাসরোধে হত্যা, বন্দুকযুদ্ধ, আত্মহত্যা, স্ত্রীকে হত্যা করে স্বামীর আত্মসমর্পণ, ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে খুনসহ বিভিন্ন কারণে মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। অপহরণের পরে হত্যার ঘটনা থেকে রেহাই পাচ্ছে না শিশুরাও। গত ৩০ জুলাই নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলার গোগনগর এলাকার মোহাম্মদ আলীর ফ্ল্যাট বাসার নিচতলা থেকে মডেলকন্যা মাহমুদার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ময়নাতদন্ত রিপোর্টে এসেছে, মাহমুদাকে মাথায় আঘাতের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। জানা যায়, হত্যাকারী হিসেবে যাকে চিহ্নিত করা হয়েছে, তিনি হলেন মুন্সীগঞ্জ জেলার নগর কসবা কুটিবাড়ি এলাকার জহিরুল ইসলামের ছেলে সাগর ইসলাম বাপ্পি। গত ১৬ আগস্ট শহরের জল্লারপাড় আমহাট্টা এলাকা নান্নু মিয়ার ভাড়া বাড়ি থেকে বস্তাবন্দি শিশু আলিফের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ২৮ আগস্ট বন্দর উপজেলার নবীগঞ্জে খুন হয়েছেন সিএনজিচালক রুবেল। মাদক ব্যবসায় বাধা দেয়ায় তাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ীরা। ৩১ আগস্ট নিখোঁজ যুবকের লাশ দুই দিন পর, মন্ডলপাড়ার ফায়ার সার্ভিসের লোকজন শীতলক্ষ্যা নদীর সৈয়দপুর কয়লার ঘাট এলাকা থেকে কামাল হোসেন নামের

এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে। ১১ সেপ্টেম্বর বন্দরের সেনপাড়ায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ইব্রাহিম নিহত হয়। পুলিশ বলছে, ইব্রাহিম ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য ছিল। ১৬ সেপ্টেম্বর বন্দরে নিখোঁজ হওয়া চার দিন পর বৃদ্ধা খোরশেদ আলমের লাশ চার দিন পরে জঙ্গল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। বন্দরে ২৭ সেপ্টেম্বর পারিবারিক কলহের জের ধরে ছোট ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন বড় ভাই জহিরুল ইসলাম। সদর উপজেলার স্কুলছাত্রী মোনালিসার হত্যাকারী সাঈদের ফাঁসির দাবিতে ৩০ সেপ্টেম্বর মানববন্ধন করেছে।

ফতুল্লায় ১১ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে ধর্ষকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত ৫ অক্টোবর ফতুল্লা থানার আফরিন আকতার নামের এক যুবতীকে তার স্বামী শ^াসরোধে হত্যা করে থানায় আত্মসমর্পণ করে। ফতুল্লা থানার পাগলা বাজার এলাকায় ৭ অক্টোবর ছিনতাইকারীর ছরিকাঘাতে আরেক ছিনতাইকারী খুন হন। ১৪ অক্টোবর একই থানার মাসদাইর আদর্শ স্কুলের পাশের পুকুরে সিয়াম নামের শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সানারপাড় এলাকার রহমান মিয়ার ফ্ল্যাট বাসার চারতলা থেকে ২৫ অক্টোবর গৃহবধূর লায়লার বিবস্ত্র লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। একই দিনে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংরোড সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ি থেকে ছিন্ন-বিছিন্ন অজ্ঞাত পরিচয় লাশ উদ্ধার হয়।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৬নং ওয়ার্ডের বার্মাস্ট্যান্ড এলাকার পুকুর থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার হয়। নাসিকের ৭নং ওয়ার্ড কদমতলী নয়াপাড় থেকে এক ছাত্রীর গলায় ফাঁস দেওয়া লাশ উদ্ধার হয়েছে। সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ি এলাকার নিখোঁজের ২৪ দিন পর বাড়ির পাশের ডোবা থেকে দেলোয়ার হোসেনের ছেলে শাফিনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। গত ১ নভেম্বর সিদ্ধিরগঞ্জের মজিববাগ এলাকার দোতলা বাড়ির রুম থেকে জামাল হোসেন নামের এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সিদ্ধিরগঞ্জে গালি দেওয়াকে কেন্দ্র করে প্রেমিকাকে আশরাফুল নামের এক যুবক ধর্ষণের পর গলাটিপে হত্যা করে। ১ সেপ্টেম্বর শহরের জামতলা ধোপাপট্টি এলাকা থেকে শাহাদাত নামের এক অবসরপ্রাপ্ত অডিট কর্মকর্তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর সোনারগাঁ থানার কাঁচপুরের কাজীপাড়া এলাকার একটি ব্যাচেলর মেস রুম থেকে দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ১২ অক্টোবর সোনারগাঁ এলাকার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে থেকে শাহজাদা নামের এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করা হয়। আওয়ামী লীগের কর্মী মোহাম্মদ আলীকে নৃশংসভাবে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

আড়াইহাজার উপজেলার বিজয়নগর এলাকায় নিজ ঘর থেকে ১৯ সেপ্টেম্বর শারমিন আকতার নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ২১ অক্টোবর ভোরে আড়াইহাজার উপজেলার সাতগ্রাম ইউনিয়নের পাঁচরুখীর ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশ থেকে গুলিবিদ্ধ চার যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ২৯ অক্টোবর গৃহকর্মী রোজিনা আক্তারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। একই তারিখে মাদকের টাকা না দেয়ায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী সাহেরা বেগমকে তার পাষন্ড স্বামী আপেল মিয়া শ্বাসরোধে হত্যা করে। ২ নভেম্বর লিপি আক্তার নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়। ঘটনার পর তার স্বামী রফিকুল ইসলাম পলাতক রয়েছে। ১ নভেম্বর নাসরিন আক্তার নামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রূপগঞ্জ থানার পিতলগঞ্জ এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে শফিকুল ইসলামের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ গত ৩১ আগস্ট। ৪ দিন পরে পুলিশ তার পরিচয় নিশ্চিত হয়। ১১ সেপ্টেম্বর ডাকাতির টাকা ভাগাভাগি করতে গিয়ে ডাকাতের গুলিতে ডাকাত নিহত হয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। ১২ সেপ্টেম্বর রূপগঞ্জের পৃথক স্থান থেকে অর্ধনগ্ন তরুণী ও এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ১৪ সেপ্টেম্বর গুলিবিদ্ধ তিন যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ১২ অক্টোবর উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের কেওঢালা এলাকার মহিউদ্দিনের ছেলে সাগরের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত ১৮ অক্টোবর ভুলতা ইউনিয়নের টেকপাড়া এলাকার আনোয়ার হোসেনের পাঁচ বছরের শিশুকন্যা জুঁই আকতারকে অপহরণকারীরা বাড়ির পাশ থেকে তুলে নিয়ে যায়। দাবিকৃত মুক্তিপণের টাকা না পাওয়ায় জুঁইকে হত্যা করে। গোলাকান্দাইলের টেংরারচর নামক স্থান থেকে গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ২১ অক্টোবর এশিয়ান হাইওয়ে (বাইপাস) সড়কের ভুলতার কুশাব এলাকা থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ৩১ অক্টোবর যৌতুকের টাকা না পেয়ে শ^শুরবাড়ির লোকজন খাদিজা আকতার নামের এক গৃহবধূকে হত্য করে। ৬ সেপ্টেম্বর রূপগঞ্জ উপজেলার ভোলব এলাকায় বাড়ির সীমানা নিয়ে বিবাদের জেরে সংরক্ষিত ইউপি সদস্য সাজেদা বেগমের লাথিতে অন্তঃসত্ত্বা শামীমা আকতার যমজ মৃত সন্তান প্রসব করেন। ১১ সেপ্টেম্বর মামুন নামের এক যুবককে নির্মমভাবে প্রহার করে দুর্বৃত্তরা হত্যা করেছে। ১৪ সেপ্টেম্বর রূপগঞ্জের পূর্বাচল উপমহরের কাঞ্চন-কুড়িল বিশ^রোড ৩০০ ফিট সড়কের আলমপুরা এলাকার ১১নং সেতুর পাশ থেকে গুলিবিদ্ধ ৩ যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। গত ১৪ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জে গণপিটুনিতে ছিনতাইকারী সন্দেহে আল আমিন মিয়া (২৫) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

স্বজনহারাদের অনেকেই বলছেন, হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ সাজা হলে খুনিদের সংখ্যা কমে যাবে। লাশ উদ্ধারের বিষয়ে জানতে চাইলে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মনিসুল হক বলেন, প্রত্যেকটি ঘটনার তদন্ত হচ্ছে। মামলা হচ্ছে। তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এসব ঘটনায় যাদের বিরুদ্ধে তথ্য প্রমাণ পাব, সেগুলো কোর্টে পাঠাব।

"